সেই আকিবের মাথায় প্রতিস্থাপিত হলো খুলির বাকি অংশ

বিএনএ, চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারির ঘটনায় গুরুতর আহত হওয়া ছাত্র আকিব মাহাদীর মাথায় চূড়ান্ত অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে। তার মাথার খুলি প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। বর্তমানে আকিবকে হাসপতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে।

আরো পড়ুন

ঢাকায় আসলেন বেলজিয়ামের রানি

চট্টগ্রামে বইমেলা শুরু বুধবার

আজও দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষে ঢাকা

সোমবার (২৮ মার্চ) সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে প্রায় সাড়ে ছয় ঘণ্টার এ অস্ত্রোপচার শেষ হয় বিকাল সাড়ে তিনটায়। এতে নেতৃত্ব দেন চমেক হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের প্রধান ডা. নোমান খালেদ চৌধুরী।

তিনি বলেন, আমরা আকিবের অপারেশন সফলভাবে শেষ করেছি। আল্লাহর রহমতে সে ভালো আছে। সকাল নয়টায় আমরা অস্ত্রোপচার শুরু করি, যা শেষ হয়েছে বিকেল তিনটা ১০ মিনিটে।

ডা. নোমান খালেদ চৌধুরী বলেন, প্রথমে তার পেটে অপারেশন করে সেখানে রাখা হাড়টি বের করা হয়। এরপর মাথা খুলে আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে হাড়টি যথাযথ স্থানে বসিয়ে নতুন করে রিপেয়ার করা হয়। আশা করছি দ্রুতই আকিব সুস্থ হয়ে উঠবে।
এর আগে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি আকিবকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগে ভর্তি করা হয়। এরপর তার বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর আজ অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করা হয়েছে।

এর আগে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা থেকে চমেক হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগে ভর্তি করা হয় চমেক এমবিবিএস ৬২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মাহাদি জে আকিবকে। মঙ্গলবার পর্যন্ত চিকিৎসকরা তার শারীরিক অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ অক্টোবর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের প্রধান ফটকের অদূরে ছাত্রলীগের প্রতিপক্ষ গ্রুপের হামলার শিকার হন শিক্ষার্থী মাহাদি জে আকিব। এতে তার মাথার হাড় ও মস্তিষ্কে মারাত্মক জখম হয়। ওই দিনই তার মাথায় প্রথম অস্ত্রোপচার করা হয়। এ সময় মাথার ফেটে যাওয়া খুলির একটি অংশ খুলে তার পেটের চামড়ার নিচে রাখা হয়। ১৯ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে ১৮ নভেম্বর আকিব বাড়ি ফেরেন।

বিএনএ/এমএফ