Bnanews24.com
অপরাধ এক নজরে চট্টগ্রাম সব খবর

আপত্তিকর ছবি দেখিয়ে লাখ টাকা আদায়, গ্রেপ্তার ৬

আপত্তিকর ছবি দেখিয়ে লাখ টাকা আদায়

বিএনএ,চট্টগ্রাম: এডিট করে আপত্তিকর ও অশ্লীল ছবির ভয় দেখিয়ে ব্যবসায়ীদের কাছ টাকা আদায় করে তারা। টাকা না দিলে প্রাণনাশ ও ব্যবসায়িক ক্ষতি করার হুমকি দেওয়া হয়। এমন চক্রকের ৬জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১ লাখ ২২ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাসান ইমাম। চট্টগ্রাম নগরীর পাহাড়তলীতে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. শামসুল হক রানা (২৭) নগরীর পাহাড়তলী থানার নোয়াপাড়া পুকুর পাড় এলাকার মো. মোবারক হোসেনের ছেলে। মাহবুব আলম রনি (২৮) নগরীর আকবরশাহ থানার আনোয়ার সাহেবের বাড়ির মৃত আনোয়রুল হোসেনের ছেলে। মো. মোশারফ হোসেন টুটুল (২৮) আকবরশাহ এলাকার রুস্তম আলী বাবুর্চির বাড়ির মো, রুস্তম আলীর ছেলে। মো. আফসার (২৯) পাহাড়তলী এলাকার চেয়ারম্যান বাড়ীর মো. হান্নানের ছেলে। মো. সুমন হোসেন প্রকাশ সাদ্দাম (৩০) পাহাড়তলী এলাকার জোলাপাড়া গ্রামের মো. আমির হোসেনের ছেলে ও মো. রাজু (২৯) পাহাড়তলী এলাকার কাজীপাড়ার মো. রফিকের ছেলে।

জানা যায়, গত ১৫ মার্চ অভিযুক্ত আসামি মো. শামছুল হক রানা নিজের পরিচয় দিয়ে গোলাম মোহাম্মদের (৬৭) কাছ থেকে তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দিলে প্রাণনাশ ও ব্যবসায়িক ক্ষতি করার হুমকি দেওয়া হয়। গোলাম মোহাম্মদ টাকা দিতে অস্বীকার করলে আসামিরা গোলাম মোহাম্মদের মানহানির উদ্দেশ্যে এডিট করা আপত্তিকর ও অশ্লীল ছবি তৈরির ভয় দেখিয়ে ২০ মার্চ সন্ধ্যা ৬টার দিকে পাহাড়তলী কাজী মসজিদ সংলগ্ন ডিপো থেকে তিন লাখ টাকা চাঁদা আদায় করে। পরবর্তীতে আসামিরা গোলাম মোহাম্মদের কাছ থেকে আরও তিন লাখ টাকা চাঁদা দেওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিলে তিনি পাহাড়তলী থানায় একটি মামলা করেন। গোলাম মোহাম্মদের অভিযোগের পর এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তারের পর আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গোলাম মোহাম্মদের কাছ থেকে শামসুল হক রানা টাকা দাবি এবং গ্রহণ করেন। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চাঁদার ১ লাখ ২২ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

বিএনএনিউজ/মনির