চট্টগ্রামে তিন পৌরসভার ভোট ১৪ ফেব্রুয়ারি

বিএনএ,চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের পটিয়া, চন্দনাইশ ও সাতকানিয়া পৌরসভার ভোটগ্রহণ হবে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

আরো পড়ুন

গণতন্ত্র মুক্তি দিবস আজ

রোববার (৩ জানুয়ারি) চতুর্থ ধাপের পৌরসভা নির্বাচনের এই তফসিল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর।

জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, চতুর্থ দফা পৌরসভা নির্বাচনে চট্টগ্রামের তিন পৌরসভা পটিয়া, চন্দনাইশ ও সাতকানিয়া সহ ৫৬টি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ সময় ১৭ জানুয়ারি, যাচাই-বাছাই ১৯ জানুয়ারি, প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৬ জানুয়ারি। নির্বাচনের দিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলবে ভোটগ্রহণ।

এরমধ্যে পটিয়া পৌরসভায় ভোট হবে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। বাকি দুটি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ব্যালটে। পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে এরই মধ্যে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে রিটার্নিং অফিসার। এদের মধ্যে সাতকানিয়া পৌরসভার জন্য সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আতাউর রহমান, পটিয়া পৌরসভার জন্য অতিরিক্ত আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা তারিফুজ্জামান এবং চন্দনাইশ পৌরসভা নির্বাচনের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসার আতাউর রহমান জানান, চতুর্থ ধাপে চট্টগ্রামের ৩টি পৌরসভার মধ্যে পটিয়ায় ইভিএম, সাতকানিয়া ও চন্দনাইশে ব্যালটে ভোটগ্রহণ হবে। অফিসিয়ালি আমরা কাগজপত্র হাতে পেয়েছি। কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ শুরু করবো।

এদিকে, আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি প্রথমবারের মতো ইভিএমের মাধ্যমে পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি ছাড়াও আরো কয়েকটি দল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। আওয়ামী লীগে মেয়র পদে ৪ মনোনয়ন প্রত্যাশী মাঠে রয়েছেন। এরা হলেন বর্তমান পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সভাপতি আ ম ম টিপু সুলতান চৌধুরী, পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আইয়ুব বাবুল ও তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা সওয়ার হায়দার চৌধুরী।

বিএনপিতে মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৬ জন হলেন পৌরসভার সাবেক মেয়র ও পৌর বিএনপির আহ্বায়ক নুরুল ইসলাম সওদাগর, গত নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী ও পৌরসভা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক তৌহিদুল আলম, পৌরসভা বিএনপির সদস্য সচিব গাজী আবু তাহের, দক্ষিণ জেলা যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি মো. শাহজাহান চৌধুরী, পৌরসভা যুবদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মো. নজরুল ইসলাম ও দক্ষিণ জেলা তরুণ দলের আহ্বায়ক ফজলুল কাদের জুলু।

চন্দনাইশে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী, মক্কা আওয়ামী ফাউন্ডেশনের সভাপতি মো. মোজাম্মেল হক, বর্তমান মেয়র মাহাবুবুল আলম খোকা, মদিনা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লায়ন রফিকুল ইসলাম, গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি শেখ টিপু চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি মো. তৌহিদুল ইসলাম রহমানী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এম শাহাদাত নবী খোকা।

দক্ষিণ জেলা বিএনপির সিনিয়র সদস্য নুরুল আনোয়ার চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সওদাগর ও চন্দনাইশ পৌরসভা ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক মো. ইফতেখার হোসেন ইফতুর মধ্যে যে কেউ বিএনপির মনোনয়ন পেতে পারেন। এছাড়া পৌরসভা এলডিপির সভাপতি এম আইনুল কবির এলডিপি মনোনয়ন পেতে পারেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

তফসিল ঘোষণার পর সাতকানিয়ায় সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের তৎপরতা বৃদ্ধি পেয়েছে। আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র ও দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মোহাম্মদ জোবায়ের, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক গোলাম ফারুক ডলার এবং বঙ্গবন্ধু পরিষদ সাতকানিয়া উপজেলা শাখার সভাপতি শফিকুল ইসলাম মাঠে রয়েছেন। এছাড়া মেয়র পদে মনোনয়নের আশায় বিএনপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগদানকারী সাবেক মেয়র হাজী মোহাম্মদুর রহমানের নামও শোনা যাচ্ছে। বিএনপি থেকে দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য হাজী রফিকুল ইসলাম, লোকমান হাকিম মানিক ও নওয়াব মিয়া দলীয় মনোনয়ন পেলে নির্বাচন করবেন বলে জানিয়েছেন। তবে পৌরসভা নির্বাচন ঘিরে জামায়াতের তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান জানান, চতুর্থ ধাপের পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে তিন পৌরসভা থেকে এবার যাচাই-বাচাই শেষে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ইচ্ছুক সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়েছে। আগামী ১৩ জানুয়ারি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মেয়র পদে দলীয়ভাবে একক প্রার্থীর নাম ঘোষণা করবেন।

দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অধ্যাপক শেখ মো. মহিউদ্দীন জানান, পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীরা নির্বাচন করবেন। তবে এখনো প্রার্থী চূড়ান্ত হয়নি। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকা কেন্দ্রে পাঠাব।

এর আগে গত ২৮ ডিসেম্বর প্রথম দফা পৌরসভা নির্বাচনে সীতাকুণ্ড পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া দ্বিতীয় দফায় পৌরসভা নির্বাচনে আগামী ১৬ জানুয়ারি সন্দ্বীপ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

বিএনএনিউজ/মনির