Bnanews24.com
Home » ৭১ বছরে মোংলা বন্দর
খুলনা বিভাগ টপ নিউজ পোর্ট ও শিপিং সব খবর সারাদেশ

৭১ বছরে মোংলা বন্দর

বিএনএ, ঢাকা: সময়ের পরিক্রমায় নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে ৭১ বছরে পৌঁছাতে চলছে মোংলা বন্দর। দিবসটি উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। ।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) মোংলা সমুদ্রবন্দর ৭১ বছরে পা রাখবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহারসহ নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের পদস্থ কর্মকর্তা, সামরিক বেসামরিক কর্মকর্তা, বন্দরের পদস্থ কর্মকর্তা, বন্দর ব্যবহারকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, শিপিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ, সিবিএ নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সাংবাদিকবৃন্দ। দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে মোংলা বন্দরের অগ্রগতি কামনায় দোয়া অনুষ্ঠান এবং দুপুর দেড়টায় মধ্যাহ্ন ভোজের মধ্যদিয়ে শেষ হবে বন্দরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আনুষ্ঠানিকতা।

মোংলা বন্দরের উপসচিব মো. মাকরুজ্জামান জানান, আগামীকাল সকাল ৯ টায় বন্দর ভবন চত্বরে শান্তির প্রতীক কবুতর ও বেলুন উড়িয়ে বন্দরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শুভ উদ্বোধন ও র‌্যালি। সকাল ১০ টায় পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত, গীতা ও বাইবেল পাঠ, বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ মুসার শুভেচ্ছো বক্তব্য, অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি কর্তৃক কেক কাটা, সকাল ১১ টায় সর্বোচ্চ বন্দর ব্যবহারকারীদের ক্রেস্ট প্রদান, কৃতিত্বপূর্ণ কাজের জন্য নির্বাচিত কর্মকর্তা কর্মচারীদের ক্রেস্ট প্রদান, বিদায়ী কর্মকর্তা কর্মচারিদের ক্রেস্ট প্রদান।

উল্লেখ, মোংলা বন্দর বাংলাদেশের ২য় বৃহত্তম সমুদ্র বন্দর। এটি খুলনা শহর থেকে ৪৮ কিলোমিটার দক্ষিণে বাগেরহাট জেলার মোংলা উপজেলার পশুর ও মোংলা নদীর মোহনায় অবস্থিত। এ বন্দরে মোংলা ইপিজেড এরও অবস্থান। বন্দরটি মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ দ্বারা পরিচালিত হয়। প্রথমে এই বন্দর গড়ে ওঠে মোংলার অদূরে দাকোপের চালনা থেকে ১৮ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে। বন্দরটি ১৯৫০ সালের ১ ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠিত হয়।

বন্দর চালু হওয়ার ১১ দিনের মাথায় সর্বপ্রথম বিদেশি জাহাজ ভিড়ে। প্রথমে এটি চালনা বন্দর নামে পরিচিত ছিল। তবে সমুদ্রগামী জাহাজ নোঙরের ক্ষেত্রে মোংলা সুবিধাজনক অবস্থান‌ে হওয়ায় পরবর্তীতে ১৯৫৪ সালে বন্দরটি মোংলায় স্থানান্তরিত হয়। বর্তমানে বন্দরটি ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকে এবং প্রতিবছর প্রায় ৪০০টি জাহাজ এখানে নোঙ্গর করে। এতে গড়ে ৩ মিলিয়ন মেট্রিকটন পণ্যের আমদানি-রপ্তানি হয়। বন্দরে রয়েছে ১১টি জেটি, ৭টি শেড এবং ৮টি ওয়্যারহাউজ ও ১২টি ভাসমান নোঙ্গর স্থান। নাবিকদের জন্য হিরণ পয়েন্টে রয়েছে একটি রেস্ট হাউজ।

এছাড়া পৃথিবীর প্রায় সব প্রধান বন্দরের সঙ্গেই মোংলা বন্দরের বাণিজ্য সম্পর্ক রয়েছে। তবে প্রধানত এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপ এবং উত্তর আমেরিকার জাহাজগুলো এই বন্দরে বেশি নোঙর করে থাকে। সৃষ্টির পর থেকে এ বন্দরটি দেশের আমদানি-রপ্তানির প্রসারে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখে আসছে।

বিএনএ/ এমএফ