Bnanews24.com
Home » “মুসলিম সংস্কৃতি বিনিময়ে নেপাল-বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগ প্রয়োজন”
কভার সব খবর স্পন্সর নিউজ

“মুসলিম সংস্কৃতি বিনিময়ে নেপাল-বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগ প্রয়োজন”

বিএনএ, ঢাকা : নেপাল মুসলিম কমিশনের প্রেসিডেন্ট শামীম মিয়া আনছারী বলেছেন, বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক উন্নয়নে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। মুসলিম সংস্কৃতি বিনিময়ে দুই দেশের যৌথ উদ্যোগ প্রয়োজন।

শনিবার (১৫ জুলাই)  নেপালের মুসলিম কমিশনের সদস্যদের সাথে সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। নেপাল সফররত প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন  ইলেকশন মনিটরিং ফোরামের চেয়ারম্যান ও সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন-এর মহাসচিব অধ্যাপক মোহাম্মদ আবেদ আলী।

নেপাল মুসলিম কমিশন চেয়ারম্যান সকাশে বিএনএ সম্পাদক মিজানুর রহমান মজুমদার
নেপাল মুসলিম কমিশন চেয়ারম্যান সকাশে বিএনএ সম্পাদক মিজানুর রহমান মজুমদার

শামীম মিয়া আনছারী বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার মুসলমানদের শান্তি-শৃঙ্খলা ও ভ্রাতৃত্ব দৃঢ় করতে ধর্মীয় সংস্কৃতি বিনিময়ে সরকারি-বেসরকারি যৌথ উদ্যোগ নেওয়া যেতে পারে। উপমহাদেশে ইসলামের ইতিহাস অতিসমৃদ্ধ কিন্তু তা প্রচারে আমরা ব্যর্থ। ইসলামকে নানাভাবে বিকৃত আকারে উপস্থাপন করা হচ্ছে, যা অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের কাছে হাস্যকর ও অসম্মানজনক। নেপালের সংখ্যালঘু মুসলমানরা নির্বিঘ্নে ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠানসমূহ উদযাপন করছে। বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক উন্নয়নে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। নেপাল-বাংলাদেশের মুসলিম সংস্কৃতি বিনিময়ে দুই দেশের যৌথ উদ্যোগ প্রয়োজন।

মতবিনিময় সভা
মতবিনিময় সভা শেষে শুভেচ্ছা স্মারক বিনিময়

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন মুসলিম কমিশনের সদস্য এডভোকেট মাহামাদীন আলী, মির্জা এরশাদ বেগ, মোহাম্মদ শামসুল হক। উক্ত মনবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন নেপালের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মো: নজির মিয়া, সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ নিউজ এজেন্সি (বিএনএ) এর সম্পাদক মিজানুর রহমান মজুমদার, কেন্দ্রীয় পরিচালক বঙ্গবন্ধু গবেষক ড. মুহম্মদ মাসুম চৌধুরী।

বিএনএনিউজ/এইচ.এম।