২ মাস ধরে বিকল চমেকের এমআরআই মেশিন

বিএনএ,চট্টগ্রাম:চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের প্রায় ১০ কোটি টাকা মূল্যের এমআরআই মেশিনটি দুই মাস ধরে বিকল হয়ে পড়ে আছে। ২০১৭ সালের অক্টোবরে হাসপাতালের রেডিওলজি ও ইমেজিং বিভাগের রোগীদের এমআরআই মেশিন দিয়ে পরীক্ষা চালু করা হয়। কিন্তু মাত্র তিন বছরের মাথায় গত অক্টোবরে বিকল হয়ে পড়ে রোগ নির্ণয়ের  এই দামী মেশিনটি।এটি সরবরাহ করেছিল ঢাকার মেডিটেল প্রাইভেট লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান।কিন্তু তিন বছরের ওয়ারেন্টি শেষ হয়ে যাওয়ায় এবং সার্ভিসিং এর কোন চুক্তি না থাকায় মেশিনটি বিকলই পড়ে আছে। এটি মেরামতের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের মধ্যে চিঠি চালাচালি চললেও এখনও কোন সুফল মেলেনি।

আরো পড়ুন

দুর্গম সীমান্ত সড়ক পরিদর্শনে সেনাপ্রধান

‘চট্টগ্রাম শাহী জামে মসজিদ বিল’ পাস

ববিতে ৩৭৭ আসন ফাঁকা, ভর্তির ৯ম বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

আর দুই মাস ধরে এমআরআই মেশিন বিকল থাকায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসা রোগীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।নিরুপায় হয়ে বেসরকারি হাসপাতাল কিংবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে যাচ্ছেন তারা।মেশিনটি বিকল থাকায় রোগীরা যেমন সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তেমনি সরকারও হারাচ্ছে রাজস্ব।এমআরআই পরীক্ষা থেকে সরকার প্রতি মাসে প্রায় ৮ লাখ টাকা রাজস্ব পেত।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ুন কবীর সংবাদ মাধ্যমকে বলেন,বিকল হওয়া এমআরইআই মেশিনটি শিগগিরি মেরামত করা হবে।সেইসঙ্গে আরও একটি নতুন এমআরআই মেশিন স্থাপন করা হবে বলেও জানান তিনি।

বিএনএনিউজ/আরকেসি