প্রথমার্ধে গোলশূন্য ব্রাজিল-সার্বিয়ার ম্যাচ

প্রথমার্ধে গোলশূন্য ব্রাজিল-সার্বিয়ার ম্যাচ

 

আরো পড়ুন

টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত টাইগারদের

ব্রাজিলের কোচের দায়িত্ব ছাড়লেন তিতে

অপরিবর্তিত একাদশ নিয়েই লড়বে ব্রাজিল

বিএনএ, স্পোর্টস ডেস্ক : ব্রাজিলের বিশ্বকাপ মিশন শুরু হলো সার্বিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নামার মধ্যে দিয়ে। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাত একটায় লুসাইল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলায় প্রথমার্ধে কোন দলই গোল করতে পারেনি।

 

ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে নিজেদের প্রান্ত থেকে গুছিয়ে আক্রমণ করে ব্রাজিল। ডান প্রান্ত থেকে বল নিয়ে সার্বিয়ার ডি বক্সে ঢুকে যায় রাফিনহা। সেখান থেকে বাড়ানো বল সার্বিয়ার ডিফেন্ডারদের গায়ে লেগে প্রতিহত হয়। ম্যাচের ৫ মিনিটে মাঝমাঠে নেইমারকে ফাউল করার কারণে হলুদ কার্ড দেখেন স্ট্রাহিনা প্যাভলোভিচ। ম্যাচের দশম মিনিটে ডি বক্সে বল পান নেইমার। কিন্তু গোলমুখে শট করতে পারেননি তিনি।

ম্যাচের ১২ মিনিটে বাম প্রান্ত ধরে সার্বিয়ার ডি বক্সে ঢুকে যায় ভিনিসিয়াস জুনিয়র। সেখান থেকে কর্নার পায় ব্রাজিল। তবে কর্নার থেকে গোল পেতে ব্যর্থ হয় ব্রাজিল। ম্যাচের ২০ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে সার্বিয়ার গোলমুখে জোড়ালো শট করেন নেইমার। তবে তা সার্বিয়ার ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে প্রতিহত হয়। ম্যাচের ২৫ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাকে যায় সার্বিয়া। ডান দিক থেকে ভেসে আসা বল সহজেই গ্লোভস বন্দি করেম অ্যালিসন বেকার।

ম্যাচের ২৭ মিনিটে ডিফেন্স চেরা পাস দেন থিয়াগো সিলভা। তবে তা জালে জড়াতে ব্যর্থ হন ভিনিসিয়াস। ম্যাচের ৩১ মিনিটে শট কর্নার থেকে পাস বাড়ান রাফিনহা। তবে তা লুফে নেন সার্বিয়ার গোলরক্ষক। ম্যাচের ৩৪ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর বল পান রাফিনহা। তার নেওয়া দুর্বল শট সহজেই গ্লোভসে নেন সার্বিয়ার গোলরক্ষক। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাকে যায় সার্বিয়া। তবে সেখান থেকে গোল করতে ব্যর্থ হয় সার্বিয়া।

ম্যাচের ৪০ মিনিটে বাম দিক থেকে আক্রমণ সাজায় ব্রাজিল। ভিনিসিয়াস ডি বক্সে ঢুকলেও তা গোলমুখে শত নিতে ব্যর্থ হয়।

শেষ পর্যন্ত গোল করতে ব্যর্থ হলে গোলশূন্য থেকে বিরতিতে যায় ব্রাজিল ও সার্বিয়া।

ব্রাজিল একাদশ

অ্যালিসন; দানিলো, মারকুইনহোস, থিয়াগো সিলভা, অ্যালেক্স সান্দ্রো; কাসেমিরো, লুকাস পাকেটা; রাফিনহা, নেইমার, ভিনিসিয়াস জুনিয়র; রিচার্লিসন।

সার্বিয়া একাদশ

ভি মিলিঙ্কোভিক-সাভিক; ভেলজকোভিচ, মিলেনকোভিক, পাভলোভিক; জিভকোভিচ, লুকিক, গুডেলজ, ম্লাদেনোভিক; ট্যাডিক, এস মিলিঙ্কোভিক-সাভিক; এ মিত্রোভিক।

বিএনএনিউজ/এইচ.এম।