30 C
আবহাওয়া
৪:৩০ অপরাহ্ণ - জুন ১৪, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » ভারতে এমপি আনার হত্যা, শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা

ভারতে এমপি আনার হত্যা, শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা

ভারতে এমপি আনার হত্যা, শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা

বিএনএ, ঢাকা: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার একটি বাড়িতে ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বাংলাদেশে ঢাকার শেরেবাংলা নগর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিহত সংসদ সদস্যের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন বাদী হয়ে হত্যা মামলাটি দায়ের করেছেন।

বুধবার (২২ মে) সন্ধ্যায় মামলাটি নথিভুক্ত হয় বলে নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) এইচ এম আজিমুল হক।

তিনি বলেন, নিহত সংসদ সদস্যের মেয়ে এই হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এখন তদন্ত-পূর্বক আসামিদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। তবে এখনও তার মৃতদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে কলকাতা পুলিশ।

বুধবার (২২ মে) বিকেলে নিউটাউনের সঞ্জীবা গার্ডেনস থেকে বেরিয়ে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের আইজি সিআইডি অখিলেশ চতুর্বেদী জানান, এখন পর্যন্ত মরদেহ উদ্ধার হয়নি। আমরা তদন্ত শুরু করেছি। আমাদের কাছে যা তথ্য রয়েছে, তাতে ১৩ তারিখে তিনি এই ভবনে ঢুকেছিলেন। তবে এর আগে এসেছিলেন কিনা সেটি আমরা জানি না।

বুধবার (২২ মে) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, পশ্চিমবঙ্গের যে ফ্ল্যাটে এমপি আনার ছিলেন, সেখানে তার মরদেহ পাওয়া যায়নি।

দুপুরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এক সংবাদ সম্মেলেন জানান, আনারকে কলকাতার নিউটাউনে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় বাংলাদেশ থেকে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তারা তিনজনই বাংলাদেশি। খুনের মোটিভ এখনও জানা যায়নি। তদন্তের স্বার্থে এখন বিস্তারিত কিছু বলতে পারছে না ভারতীয় পুলিশ।

মুমতারিন ফেরদৌস ডোরিন তার ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্টে বুধবার (২২ মে) বিকেলে এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘আমি আমার বাবার হত্যার বিচার চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলছেন, তুমি বলেছিলে আমি চেষ্টা করে খুঁজে পেয়েছি। ধৈর্য্য ধরো তুমি, বিচার হবে।’

এর আগে আজ বিকেলে ডিবি কার্যালয়ে যান ডোরিন। সেখানে ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। পরে তিনি বাবা হত্যার বিচার দাবি করে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি এতিম হয়ে গেলাম। যারা আমার বাবাকে হত্যা করেছে আমি তাদের বিচার চাই, ক্রস কিংবা ফাঁসিতে ঝুলতে দেখতে চাই।’

সংসদ সদস্য আনারের দুই কন্যার মধ্যে ডোরিন ছোট। বড় কন্যা চিকিৎসক আর ছোটকন্যা ডোরিন একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইনে পড়ছেন।

বিএনএনিউজ/ বিএম/এইচমুন্নী

Loading


শিরোনাম বিএনএ