কাউন্সিলর প্রার্থী কাদেরসহ ১১ জনের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

কাউন্সিলর প্রার্থী কাদেরসহ ১১ জনের তিন দিনের রিমান্ড

অপরাধ কভার চট্টগ্রাম সব খবর

বিএনএ,চট্টগ্রাম: নগরীর ২৮ নম্বর পাঠানটুলী ওয়ার্ডে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত হওয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল কাদেরসহ ১১ জনকে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে আসামিদের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডর আদেশপ্রাপ্ত ১১ আসামি হলেন- মো. আবদুল কাদের (৫০), হেলাল উদ্দিন প্রকাশ হেলাল (৪০), ওবাইদুল করিম মিন্টু (৪৫), আসাদ রায়হান (৩৫), ইমরান হোসেন ডলার (২৪), দিদার উল্লাহ (৪৮), মিনহাজ হোসেন ফরহাদ (২০), শহিদুল ইসলাম প্রকাশ সাহেদ (৩৭), জাহিদুল আলম জাহিদ (২৫), শহিদুল ইসলাম (৩৩) এবং আবদুর রহমান (৪৪)। এদের মধ্যে মিনহাজ হোসেন ফরহাদ, শহিদুল ইসলাম প্রকাশ সাহেদ, জাহিদুল আলম জাহিদ, শহিদুল ইসলাম, আবদুর রহমান এ মামলার সন্দিগ্ধ আসামি।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নগর গোয়েন্দা পুলিশের (পশ্চিম) পরিদর্শক মো. শাহাদাত হোসেন খান বলেন, এজাহারনামীয় ৬ জন ও সন্দিগ্ধ ৫ জনসহ মোট ১১ জনকে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছিল। আদালত শুনানি শেষে প্রত্যেকের তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

এর আগে আজ বুধবার ভোরে আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুল কাদেরসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ৪০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নম্বর: ১০। মামলার বাদী নিহত আজগর আলী বাবুলের ছেলে সেজান মাহমুদ সেতু।

মামলায় এজাহারভুক্ত আসামিরা হলেন মো. আবদুল কাদের (৫০), হেলাল উদ্দিন প্রকাশ হেলাল (৪০), ওবায়দুল করিম মিন্টু (৪৫), আবদুল ওয়াদুদ রিপন (৪২), আবদুর রহিম রাজু (৪৫), আসাদ রায়হান (৩৫), আলাউদ্দিন আলো (৩৫), ইমরান হোসেন ডলার (২৪), দিদার উল্লাহ (৪৮), সালাউদ্দিন সরকার (৪৫), দেলোয়ার রশিদ (৪২), মো. আলমগীর (৪৫) ও আবদুন নবী (৪৭)।

উল্লেখ, মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) রাত নয়টার দিকে পাঠানটুলীর মগপুকুর এলাকায় প্রতিদ্বন্দ্বী দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের গোলাগুলিতে স্থানীয় মহল্লা সর্দার আজগর আলী বাবুল নিহত হন। একই ঘটনায় মাহবুব নামে আরেক কর্মী গুলিবিদ্ধ হন। এ ঘটনার জন্য নজরুল ইসলাম বাহাদুর আবদুল কাদেরকে দায়ী করলেও গ্রেফতার হওয়ার আগে আব্দুল কাদের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বাহাদুরের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

নজরুল ইসলাম বাহাদুর চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সদস্য এবং ২৮ নম্বর পাঠানটুলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী। ২০১০-২০১৫ মেয়াদে তিনি ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছিলেন।

অপরদিকে নগর যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আবদুল কাদের ২০১৫ সালে ওই ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। কাদের নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী।

বাবুল সর্দারের মরদেহ নগরীর চৈতন্য গলি কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন তার ছেলে সেজান মাহমুদ সেতু।

বিএনএনিউজ/মনির

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *