27 C
আবহাওয়া
৬:৫৩ অপরাহ্ণ - ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » মোবাইল চুরির অভিযোগে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

মোবাইল চুরির অভিযোগে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

মোবাইল চুরির অভিযোগে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

বিএনএ, ঢাকা : ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মোবাইল চুরির অভিযোগে মোহাম্মদ পিন্টু (৩৩) নামে এক যুবককে চার ঘন্টা গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে হাসপাতালের আনসার সদস্যদের বিরুদ্ধে।

সোমবার (১১ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়।

হাসপাতালের আনসার সদস্যদের ক্যাম্প ইনচার্জ প্লাটুন কমান্ডার (পিসি) শাহ আলম জানান, হাসপাতালের ২০০ নম্বর ওয়ার্ডে এক রোগীর মোবাইল চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় সেখানে কর্তব্যরত আনসার সদস্যরা চোর সন্দেহে পিন্টুকে ধরে আটক করেন।  তারপরে তাকে হাসপাতালের প্রশাসনিক ব্লক পরিচালকের অফিস রুমের পাশের বাগানে নিয়ে যাওয়া হয়। মোবাইল চুরির অভিযোগে ওই যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়। সকালে  যারা ডিউটিরত ছিলেন, তারা বেঁধেছেন। তবে চোরকে একটু শাস্তি তো দিতে হয়। এছাড়াও এর আগে কয়েকবার মোবাইল চুরির অপরাধে তাকে ধরা হয়েছিল।

এদিকে মোবাইল চুরির অপরাধে আটক পিন্টু জানান, সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত টানা চার ঘণ্টা তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে আনসার কমান্ডার শাহ আলম ও পিসি মনিরসহ কয়েকজন মিলে আমাকে বিভিন্ন কাদায় তারা নির্যাতন করে।   তবে মোবাইল চুরি করেছেন কিনা? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন আমি মোবাইল চুরি করি নাই। আমি হাসপাতালে আমার পরিচিত এক রোগীকে দেখার জন্য আসি।  আমাকে সন্দেহ করে তারা আটক করেছে।

এ বিষয়ে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেসন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) ফারুক হোসেন জানান, সন্দেহজনক কোনো ব্যক্তিকে আটক করার সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করতে হবে। থানা পুলিশ বিস্তারিত তদন্ত করে দেখবে।

ঢাকা মহানগর আনসার দক্ষিণ জোন অধিনায়ক আলী রেজা রাব্বি সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি আমি কিছুক্ষণ আগে শুনেছি। বিস্তারিত জেনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  ঢামেক

হাসপাতাল পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হক জানান, হাসপাতালে একটি ওয়ার্ডের লোকজন মোবাইল চুরি সন্দেহ হাতে নাতে তাকে ধরেছেন। রোগীর স্বজনরা  আটক যুবকের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে মামলা করবেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, গাছের সঙ্গে তাকে বেঁধে রাখার নির্যাতন করার বিষয়টি দেখা হচ্ছে।

বিএনএনিউজ/আজিজুল/এইচ.এম।

Loading


শিরোনাম বিএনএ