Bnanews24.com
Home » মিয়ানমারে একমাসে ১৫৬২ জান্তা সৈন্য নিহত!
কভার মিয়ানমার

মিয়ানমারে একমাসে ১৫৬২ জান্তা সৈন্য নিহত!

মিয়ানমার

বিএনএ বিশ্ব ডেস্ক, ঢাকা: মিয়ানমারে গত ৭ সেপ্টেম্বর হতে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত প্রায় একমাসে সরকারি সৈন্য ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সংঘর্ষে বোমা হামলা  ও গোলাগুলিতে কমপক্ষে ১৫৬২ জন জান্তা সৈন্য নিহত এবং ৫৫২ জন  আহত হয়েছেন। এমন দাবি করেছে দেশটির ছায়া সরকার ন্যাশনাল ইউনিটি গর্ভমেন্ট (এনইউজি)।

শনিবার (৯ অক্টোবর) বার্মার অনলাইন পত্রিকা ইরাবতি এ তথ্য জানিয়েছে। তবে একই সময়ে সরকার বিরোধীদের মধ্যে কতজন হতাহত হয়েছে সে বিষয়ে কোন তথ্য জানানো হয়নি। সবচেয়ে বেশি হতহতের ঘটনা ঘটেছে আগস্ট মাসে।

গণমাধ্যমের তথ্যে জানানো হয়, মিয়ানমারের বিভিন্ন রাজনৈতিক গোষ্ঠী, আঞ্চলিক সশস্ত্র গ্রুপ এবং স্বাধীনতাকামী বিদ্রোহীদের সমন্বয়ে গঠিত ন্যাশনাল ইউনিটি গর্ভমেন্ট (এনইউজি) জানিয়েছে, ওই একমাসে সেনাবাহিনী, মিয়ানমারের প্রশাসন এবং সেনাবাহিনী কর্মকর্তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান লক্ষ্য করে ৯৫৩টি হামলা হয়েছে।

তারমধ্যে ইয়াংগুনেই বিস্ফোরণ ঘটেছে ১৭৮টি এবং মান্দালায় ৮১টি। সাম্প্রতিক সময়ে মিয়ানমারে গৃহে তৈরি হাতবোমার ব্যবহার ব্যাপক ভাবে বেড়েছে। তাছাড়াও দুর্গম এলাকায় মাইন বিস্ফোরণে সেনাবাহিনীর সদস্যদের হতাহতের সংখ্যাও কম নয়!

জান্তা সরকারের পদত্যাগের দাবিতে গত ৭ সেপ্টেম্বর এনইউজি, সরকারের বিরুদ্ধে সরকারের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। সেনাবাহিনীর মুখপত্র জেনারেল জঅহ মিন তুন জানিয়েছেন এনইউজির ঘোষণার পর থেকে মিয়ানমারে সামরিক বাহিনী ও সরকারী স্থাপনার ওপর ইয়াংগুন এবং মান্দালায় চোরাগুপ্তা হামলা বেড়েছে।

আরও পড়ুন : মিয়ানমারের ৯ শহরে ইন্টারনেট বন্ধ করলো জান্তা সরকার

অং সান সুচির নেতৃত্বে সরকার গঠন ঠেকাতে গত ১ফেব্রুয়ারি মিয়ানমার সেনাবাহিনী দেশটির রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল  এবং ১বছরের জন্য দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করে। গ্রেপ্তার করা হয় স্টেট কাউন্সিলর সুচিসহ সাবেক প্রেসিডেন্ট, মন্ত্রী ও এমপিদের। অং সান সুচির বিরুদ্ধে একাধিক দুনীর্তি ও ক্ষমতার অপব্যবহারের মামলা দায়ের করা হয়েছে।

থাইল্যান্ড ভিত্তিক মিয়ানমারের  Assistance Association for Political Prisoners (AAPP)  জানায়, ২ফেব্রুয়ারি থেকে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী ১১৬১ জনকে হত্যা করেছে জান্তা সরকার। গ্রেপ্তার করা হয় ৮হাজার ৮শত১৭জনকে।

বিভিন্ন প্রদেশের আঞ্চলিক পত্রিকাগুলোর(The Kachin Post ) রিপোর্টে বলা হয়, মিয়ানমারে সেনা সদস্যরা সরকার বিরোধীদের খোঁজে প্রতিরাতে গ্রামে গ্রামে অভিযান চালায়। বয়স্ক ও যুবকদের ধরে ধরে নানাভাবে নির্যাতন করে চলেছে। পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে সাধারণ মানুষের ঘরবাড়ি। সেনাবাহিনীর নির্যাতন এত মাত্রাই বেড়েছে যে, চিন,শান, সাগাইং অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষ এলাকা ছেড়ে পাহাড়ে গহীন জঙ্গলে আশ্রয় নিয়েছে। মানবেতর জীবন যাপন করছে। Source: Radio free Asia

বিএনএনিউজ২৪/ এসজিএন/এমএইচ