Bnanews24.com
Home » লাগেজ ছুঁড়ে মারার ঘটনা দুঃখজনক: বিমানের এমডি
অপরাধ জনদুর্ভোগ টপ নিউজ সব খবর

লাগেজ ছুঁড়ে মারার ঘটনা দুঃখজনক: বিমানের এমডি

লাগেজ ছুঁড়ে মারার ঘটনা দুঃখজনক: বিমানের এমডি

বিএনএ ডেস্ক: যাত্রীদের লাগেজ ছুড়ে মারার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মো. যাহিদ হোসেন। ভবিষ্যতে এমন ঘটনা ঘটবে না বলে আশ্বস্ত করেছেন তিনি। বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর বলাকা ভবনে ‘মিট দ্য প্রেসে’ একথা বলেন তিনি।

যাহিদ হোসেন বলেন, বিমানের গ্রাহক সেবা ও লাগেজ হ্যান্ডলিং সেবা প্রত্যাশিত পর্যায়ে নেই। গ্রাহক সেবার মান উন্নয়নের সুযোগ আছে। প্রত্যাশা অনুযায়ী সেবা দিতে না পারলে মানুষ কেন টিকিট কিনবে। বলেন, আমাদের অন্যান্য উড়োজাহাজ সংস্থার সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে হবে।

বিমানের এমডি বলেন, গ্রাহক সেবার মান বাড়াতে পারলে যাত্রীও বাড়বে। আর তা করতে পারলে ব্যবসাও ভাল হবে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সেবার মান কাঙ্ক্ষিত পর্যায়ে নেই উল্লেখ করে সিইও বলেন, ‘আমরা ককপিট ও কেবিন ক্রুদের যাত্রীদের সঙ্গে আচরণে পরিবর্তন আনতে বলেছি। যাত্রীদের সঙ্গে সম্মানজনক ও মানবিক আচরণ করতে বলেছি। অন্য আরও দশটি বাণিজ্যিক এয়ারলাইনসের মতো বিমানকে একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠা ও পরিচালনা করার কথা বলেন তিনি।

যাহিদ হোসেন জানান, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ব্যবসা সম্প্রসারণ করে বার্ষিক আয় ৬ হাজার ৬৫০ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ৯ হাজার ৫০০ কোটি টাকা করার পরিকল্পনা করেছে। বলেন, বর্তমানে বিমান বছরে ৭০০ মিলিয়ন ডলার আয় করছে। কিন্তু ব্যবসা সম্প্রসারণ করে ১ বিলিয়ন ডলার আয় করতে চাই।

যাহিদ হোসেন জানান, ব্যবসা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে ২১টি উড়োজাহাজের সর্বোত্তম ব্যবহার করা হবে। যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন নতুন গন্তব্যে রুট সম্প্রসারণ করবে বিমান। যেখানে চাহিদা আছে সেখানে ফ্লাইটের সংখ্যাও বাড়ানো হবে।

টরন্টো রুটে সাড়া

সদ্য চালু হওয়া টরন্টো ফ্লাইট সম্পর্কে যাহিদ হোসেন বলেন, এই রুটে যাত্রীদের কাছ থেকে ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। গড়ে প্রায় আড়াইশ যাত্রী এই রুটে যাতায়াত করছেন। জানান, বিমানের ফ্লাইটে ভারত ও নেপালের প্রায় ৭০-৮০ জন ট্রানজিট যাত্রী টরন্টো যাচ্ছেন যা একটি ভালো লক্ষণ। এপ্রিল ও জুন মাসে বিমানের হ্যাঙ্গারে দুর্ঘটনার বিষয়ে তদারকির ব্যর্থতাকে দায়ী করেন এমডি।

বিএনএ/এ আর