নির্ধারিত সময়ে শেষ হয়নি আরও একটি বিদ্যুৎ প্লান্টের কাজ

বিএনএ,ঢাকা: করোনার পরিস্থিতির কারণে এক বছরেও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ৪৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন আরও একটি বিদ্যুৎ প্লান্টের কাজ সম্পন্ন হয়নি।প্রায় ১৫’শ কোটি টাকা ব্যয়ে প্লান্টের কাজ ২০২০ সালের মধ্যে শেষ হবার কথা ছিল।ওই বছরের ২৬ মার্চ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের যন্ত্রাংশ মেরামতের জন্য জার্মানি, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া ও সিঙ্গাপুর থেকে ৭০ সদস্যের বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধি দল আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আসার কথা ছিল।কিন্তু বিশেষঞ্জ আসার দলের ব্যাপারে আপত্তি জানায় স্বাস্থ্য বিভাগ।

আরো পড়ুন

‘চট্টগ্রাম শাহী জামে মসজিদ বিল’ পাস

ববিতে ৩৭৭ আসন ফাঁকা, ভর্তির ৯ম বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

বিদেশী বিমেষজ্ঞ বাংলাদেশ আগমন ঠেকাতে বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষকে চিঠির মাধ্যমে জানান জেলার সিভিল সার্জন।ফলে বিশেষজ্ঞ দল আসতে না পারায় নির্ধারিত সময়ে প্লান্টটি চালু করা সম্ভব হয়নি। প্লান্টটি চালু করতে পারলে জাতীয় গ্রিডে আরও ৪৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সংযোজন যেত।বর্তমানে ১৬৬০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন বিদ্যুৎ কেন্দ্রটিতে ১৫৬৮ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে।প্লান্টটি চালু হলে উৎপাদন ২ হাজারের উপরে পৌঁছানো যেত।

বিএনএনিউজ/সরোয়ার,আরকেসি