Bnanews24.com
Home » ১৬ বছরে পণ ভাঙ্গল ভারত: চিনের সাহায্যেও আপত্তি নেই
কভার করোনা ভাইরাস বিশ্ব ভারত সব খবর

১৬ বছরে পণ ভাঙ্গল ভারত: চিনের সাহায্যেও আপত্তি নেই

বিএনএ, বিশ্ব ডেস্ক: ১৬ বছর আগে দরিদ্র দেশের তকমা কাটিয়ে উঠতে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ক্ষেত্রে বিদেশে থেকে ত্রাণ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।দরিদ্র দেশের তকমা কাটিয়ে উঠতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছিল দেশটি। কিন্তু করোনার ভয়াবহ প্রকোপে নেওয়া সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে হচ্ছে ভারতকে।

করোনা সামাল দিতে এখন আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, রাশিয়ার মতো দেশ তো বটেই, সীমান্ত সঙ্ঘাত ঘিরে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকা চিনের কাছ থেকেও সাহায্য নেওয়ায় আর আপত্তি নেই । চির শত্রু হিসাবে পরিচিত প্রতিবেশী দেশ পাকিস্থানের সাহায্যেও গ্রহণ করতে আপত্তি করেনি।

কোভিড-১৯ এর অতিমারির সূচনা পর্বে গোটা বিশ্বকে চিকিৎসা সরঞ্জাম, ওষুধ সরবরাহ করে ‘আত্মনির্ভর’ হওয়ার বার্তা দিয়েছিল ভারত। কমপক্ষে ৮০টি দেশে সাড়ে ৬ কোটি প্রতিষেধক পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় এই মুহূর্তে ভয়ঙ্কর সঙ্কট নেমে এসেছে ভারতে। সরকারি হিসেবে প্রতিদিন সাড়ে তিন হাজারে বেশি মানুষ মারা যাচ্ছে। বেসরকারি হিসাবে ৫ হাজারের কাছাকাছি!

মৃত্যুমিছিল রোখার জন্য প্রয়োজনীয় অক্সিজেনে ঘাটতি দেখা দিয়েছে। ফ্লু প্রতিরোধী একাধিক প্রয়োজনীয় ওষুধেরও আকাল দেখা দিয়েছে বাজারে। ব্যাপক হারে টিকাকরণের জন্য যে পরিমাণ প্রতিষেধক প্রয়োজন, তা তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় কাঁচামালের জোগান নেই।

এমন পরিস্থিতিতে ভারতের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে, যার মধ্যে রয়েছে আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, রাশিয়া, আয়ারল্যান্ড, বেলজিয়াম, রোমানিয়া, লাক্সেমবার্গ, পর্তুগাল, সুইডেন, অস্ট্রেলিয়া, ভুটান, সিঙ্গাপুর, সৌদি আরব, হংকং, তাইল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, সুইৎজারল্যান্ড, নরওয়ে, ইতালি এবং সংযুক্ত আরব আমিররাত, এই ২০টি দেশ। এর মধ্যে অক্সিজেনের জোগান দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ভুটান।

রেমডেসিভির এবং অন্যান্য ওষুধের পাশাপাশি মে মাসে অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি প্রতিষেধক ভারতের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নেওয়ার কথা জানিয়েছে আমেরিকা।

বিএনএ/ওয়াই এইচ/ এজিএন