ঘটনাবহুল ২০২০

২০২০ সালের বিশ্বের আলোচিত ঘটনাগুলো

টপ নিউজ ফিরে দেখা ২০২০ বিশ্ব সব খবর

বিএনএ, বিশ্বডেস্ক : এটা অন্য রকম একটা বছর, এটা ঘরবন্দি বছর! করোনার কারণে বছরের বড় একটা সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে চলেছে লকডাউন। বিশ্ব অর্থনীতিতে বড় ধরণের ধস নেমেছে। চাকরি হারিয়েছে লক্ষ লক্ষ মানুষ।
শেষ হচ্ছে ঘটনাবহুল ২০২০ সাল।

বছরের প্রথম থেকে করোনা শেষ দিকে এসে মার্কিন নির্বাচন ছিল বেশি আলোচনার। নির্বাচনী ফলাফলকেই অস্বীকার করে বসে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

তবে বছর শেষে বড় প্রাপ্তি করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার।

করোনার থাবা :

চীনা কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুযায়ী, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ সালে চীনের হুবেই প্রদেশে প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ে। হুবেই প্রদেশে উহান শহরের একটি সামুদ্রিক খাবার ও পশুপাখির বাজারের সাথে প্রথম সংক্রমণগুলোর সম্পর্ক আছে। কিন্তু চীনা গবেষকদের এক জরিপ, যা ল্যান্সেট চিকিৎসা সাময়িকীতে প্রকাশিত হয় এ বছরের গোড়ার দিকে, তাতে বলা হয় করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেশটিতে প্রথম পাওয়া যায় ২০১৯-এর ডিসেম্বরের প্রথম দিকে।

নতুন এই রোগটিকে প্রথমদিকে বিভিন্ন নামে ব্যাখ্যা করা হলেও ফেব্রুয়ারি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা রোগটির আনুষ্ঠানিক নাম দেয় ‘করোনা ভাইরাস ডিজিজ ২০১৯’-এর সংক্ষিপ্ত রূপ, কোভিড-১৯।

২০২০ সালের ১১ মার্চ কোভিড-১৯ প্রার্দুভাবকে বিশ্ব মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

শ্বাসতন্ত্র ও ফুসফুস আক্রমণকারী এই ভাইরাস পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে কেড়ে নিয়েছে অনেক মানুষের জীবন। অনেক মানুষ শিকার হয়েছে দীর্ঘমেয়াদী শারীরিক জটিলতার। ২১ ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত জন্স হপকিন্সের তথ্য অনুযায়ী পৃথিবীব্যাপী এই ভাইরাসে সংক্রমিতের সংখ্যা সাত কোটি ৬৮ লাখ আর মৃতের সংখ্যা ১৭ লাখ।

এ ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে লকডাউন ও বিধিনিষেধের কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অর্থনীতি স্থবির হয়ে পড়েছে। কর্মহীন হয়ে পড়েছে পৃথিবীর কয়েক কোটি মানুষ। বলা হচ্ছে, ১৯৩০ দশকে যে বিশ্ব মহামন্দা পরিস্থিতি (যা গ্রেট ডিপ্রেশন নামে পরিচিত) তৈরি হয়েছিল, তার পর এই প্রথম করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে আবার বড় রকমের ধ্স নেমেছে। অনেকের ধারণা, মহামারি হয়তো নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে, কিন্তু বিশ্ব অর্থনীতির যে মারাত্মক ক্ষতি এর মধ্যে হয়ে গেছে, তা কাটাতে লেগে যাবে অনেক বছর।

ভারত-চীন সীমান্ত উত্তেজনা

চলতি বছরের জুনে লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় সেনা এবং চীনা সেনাদের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে ভারতের ২০ সেনা নিহত হয়।

সংঘর্ষে চীনা সেনারাও নিহত হলেও এখন পর্যন্ত চীনের পক্ষ থেকে কোন সংখ্যা প্রকাশ করা হয়নি। লাদাখ ইস্যু নিয়ে নিয়ে দেশ দুইটির মধ্যে চরম উত্তেজনা শুরু হয়, সম্পর্ক নেমে যায় তলানিতে।

বৈরুত বিস্ফোরণ

লেবাননের রাজধানী বৈরুতের বন্দরে ৪ অগাস্ট রাসায়নিক পদার্থের এক গুদামে বিস্ফোরণ ছিল এ শতাব্দীর ভয়াবহতম ‘অ-পারমাণবিক’ বিস্ফোরণ।

বৈরুতের বন্দর এলাকায় অনেক বছর ধরে মজুত রাখা প্রায় দুই হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের বিস্ফোরণে নিহত হন দুই শতাধিক মানুষ, আহত হন ছয় হাজারেরও বেশি।

ইসরাইলের সঙ্গে বিভিন্ন মুসলিম দেশের সম্পর্ক

কয়েকটি মুসলিম দেশের সঙ্গে নাটকীয় সম্পর্কোন্নয়ন হয় ইসরাইলের। ১৩ আগাস্ট ইসরায়েল এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের ঘোষণা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দুই দেশের সম্পর্ককে ঐতিহাসিক বলে আখ্যায়িত করেন।

এক যুক্ত বিবৃতিতে ইসরাইল এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত জানায়, ‘এই ঐতিহাসিক অগ্রগতি মধ্যপ্রাচ্যে শান্তির অগ্রযাত্রায় সাহায্য করবে’ বলে তারা আশা করেন। তারা জানায়, দুই দেশের মধ্যে স্বাভাবিক সম্পর্কের বিনিময়ে ইসরাইল পশ্চিম তীরের বিশাল ফিলিস্তিনি এলাকা ইসরাইলের অংশ করে নেয়ার কাজ আপাতত স্থগিত রাখবে।

এছাড়া এ বছর ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করেছে বাহরাইন, মরক্কো, সুদান। তুরস্কও দুই বছর পর ইসরায়েলে রাষ্ট্রদূত নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে।

জর্জ ফ্লয়েড হত্যা ও ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার আন্দোলন

যুক্তরাষ্ট্রের মিনিয়াপোলিসে পুলিশ হেফাজেতে এক কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর জের ধরে ২০২০ সালে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার আন্দোলন। পুলিশের হেফাজতে থাকার সময় মারা যান ৪৬ বছর বয়সী আফ্রিকান আমেরিকান নাগরিক ফ্লয়েড।

অনলাইনে ভাইরাল হওয়া ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, প্রায় আট মিনিট ধরে ফ্লয়েডের ঘাড়ের ওপর হাঁটু গেড়ে তাকে চেপে ধরে রেখেছেন ৪৪ বছর বয়সী শ্বেতাঙ্গ সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক শভিন। জর্জ ফ্লয়েড দম নিতে না পেরে হাঁপাচ্ছেন, আর কাতর কণ্ঠে বারবার অনুনয় করছেন, ‘প্লিজ, প্লিজ, প্লিজ’। ভিডিওটি করেন পথচারী ১৭ বছরের তরুণী ডারনেলা ফ্রেজিয়ার।

ওই হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত হন পুলিশ অফিসার ডেরেক শভিন। তাকে আদালতে নেয়ার পর এক মিলিয়ন ডলারের জামিনে মুক্তি দেয়া হয়। আগামী বছর মার্চে বিচারের শুনানি হবার কথা। ওই সময়ে সেখানে উপস্থিত থাকা আরো তিনজন পুলিশ কর্মকর্তাকেও বরখাস্ত করা হয় এবং তাদের বিরুদ্ধে হত্যায় সহযোগিতার অভিযোগ আনা হয়।

জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে পড়ে বিক্ষোভ। করোনাভাইরাস আতঙ্ক উপেক্ষা করে মানুষ প্রতিবাদ সমাবেশ, মিছিল ও বিক্ষোভে পথে নামে। বিক্ষোভকারী ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি শহরে জারি করা হয় কারফিউ। যুক্তরাষ্ট্রের সংরক্ষিত সামরিক বাহিনী, ন্যাশনাল গার্ডের সৈন্য মোতায়েনের ঘটনাও ঘটে।

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন

সারা বছর ধরে বিশ্বের নজর ছিল যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দিকে। যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ৪ নভেম্বর। যুক্তরাষ্ট্রে ২০২০-সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে ঘিরে ছিল নজিরবিহীন সামাজিক এবং রাজনৈতিক বিভাজন, তিক্ততা ও নোংরামি।

ফলাফল ঘোষণার পর্বও ছিল চরম নাটকীয়। ইলেকটোরাল কলেজের ভোটে এগিয়ে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন যখন দাবি করেন তিনি জয়ের পথে রয়েছেন, তখন রিপাবলিকান ট্রাম্প ভোট জালিয়াতি এবং ব্যালট চুরির অভিযোগ এনে দাবি করেন নির্বাচনে তিনিই জয়ী হয়েছেন।

ইলেকটোরাল কলেজের ভোটে জো বাইডেনের পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়া নিশ্চিত হয় ১৫ ডিসেম্বর। বাইডেন পান ৩০৬টি ইলেকটোরাল ভোট আর বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পান ২৩২টি।

ট্রাম্প শিবির বলছে, তাদের আইনি লড়াই চলতে থাকবে, এবং তারা সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত যাবেন – যদিও সুপ্রিম কোর্টে এরকম কোনো আপিল শোনা হবে কিনা এবং তা নির্বাচনী ফল উল্টে দিতে পারবে কিনা – তার কোনো নিশ্চয়তা নেই।

ভোটের ফল এখন ওয়াশিংটন ডিসিতে পাঠানো হবে এবং কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে আগামী ৬ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিক গণনা হবে। এটাই আগামী ২০ জানুয়ারি জো বাইডেনের শপথ নেয়ার পথ তৈরি করবে।

যুদ্ধের দামামা

নাগোর্নো-কারাবাখ পূর্ব ইউরোপে দক্ষিণ ককেশাসের বিরোধপূর্ণ এলাকাটিকে কেন্দ্র করে ২৭ সেপ্টেম্বর আবার যুদ্ধের দামামা বেজে ওঠে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে। এই এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে দুই দেশের মধ্যে এর আগেও সংঘর্ষ হয়েছে। সমঝোতার মাধ্যমে ছয় বছর ধরে চলা যুদ্ধ ১৯৯৪ সালে থেমে গেলেও তাদের মধ্যে কখনো শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়নি।

আন্তর্জাতিকভাবে এই এলাকাটি আজারবাইজানের অংশ বলে স্বীকৃত হলেও, আর্মেনিয়ার সরকারের সমর্থনে জাতিগত আর্মেনিয়রা এটি নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। দুটি দেশই এলাকাটিকে তাদের নিজেদের অংশ বলে দাবি করে। রাশিয়ার মধ্যস্থতায় নভেম্বরে একটা শান্তি চুক্তি হলেও তা কার্যকর হয়নি। ছয় সপ্তাহের বেশি চলা রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে দু’পক্ষের পাঁচ হাজারের বেশি সৈন্য প্রাণ হারিয়েছে।

ইথিওপিয়ায় সংঘাত

নভেম্বরে ইথিওপিয়ার সরকারি বাহিনীর সঙ্গে উত্তরে টিগ্রে’র ক্ষমতাসীন দল টিগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট (টিপিএলএফ) এর মধ্যে তীব্র লড়াই শুরু হয়।

সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত শত শত মানুষ মারা গেছে। ঘড়ছাড়া হয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ।

করোনার টিকা এলো

বছরজুড়ে করোনা ভাইরাসের দাপট থাকলেও আশার খবর, নভেম্বরের ৯ তারিখে আমেরিকান কোম্পানি ফাইজার ও জার্মানির বায়োনটেক যৌথভাবে টিকা উদ্ভাবনে তাদের সাফল্য ঘোষণা করেছে। কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়, করোনার আক্রমণ থেকে লোকজনকে রক্ষা করতে তাদের টিকা ৯০ শতাংশের বেশি কার্যকর।

ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, সৌদি আরব, কানাডা, মেক্সিকো, চিলি, কোস্টারিকায় করোনার ভ্যাকসিন প্রদান শুরু হয়েছে। এছাড়া শিগগিরই ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে টিকা প্রদান শুরু হবে।

বিএনএনিউজ/এইচ.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *