Bnanews24.com
জাতীয় টপ নিউজ

পাঁচ হাসপাতালে করোনার টিকাদান শুরু আজ

হাসপাতাল

রাজধানীর পাঁচটি হাসপাতালে করোনা টিকার কার্যক্রম শুরু হচ্ছে আজ। এই পাঁচ হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে টিকাদানের প্রস্তুতি।

এর মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) ও মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এদিন ৪০০ স্বাস্থ্যকর্মী কোভিড–১৯–এর টিকা নেবেন। এই তিন হাসপাতাল বাদে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ১০০ ও বাংলাদেশ–কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ৬০ জন স্বাস্থ্যকর্মীকে এ টিকা দেওয়া হবে।

সরিজেমিনে দেখা গেছে, নিজ নিজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি নিতে ব্যস্ত। প্রতিটিতেই টিকাদানকেন্দ্র, অপেক্ষা ঘর, টিকা দেওয়ার বুথ এবং বিশ্রাম শয্যার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আইসিইউ সুবিধা রাখা হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও মুগদা হাসপাতালে। বিএসএমএমইউ করোনা টিকাদানকেন্দ্রে আইসিইউ ব্যবস্থা রাখা হয়নি। তবে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, জরুরি প্রয়োজনে অবশ্যই টিকা নেওয়া ব্যক্তির জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তাদের করোনা টিকাদানকেন্দ্রে ১৪০ জন স্বাস্থ্যকর্মী করোনার টিকা নেবেন। এর মধ্যে ২০ জন চিকিৎসক, ২০ জন নার্স আছেন। অন্যরা হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মী ও স্টাফ। সেখানে চারটি টিকা দেওয়ার বুথের মধ্যে দুটি নারীদের জন্য। বিশেষজ্ঞসহ মোট ২৩ জন চিকিৎসক টিকা কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। এখানে টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা এবং ২০ জন স্বেচ্ছাসেবক থাকবেন। বুধবার বিকেলের দিকে হাসপাতালে করোনার টিকা পৌঁছায়।

মুগদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই হাসপাতালের বহির্বিভাগের তৃতীয় তলায় করোনার টিকা দেওয়া হবে। প্রথম দিনে মোট ৬০ জন স্বাস্থ্যকর্মী করোনা টিকা নেবেন। এর মধ্যে চিকিৎসক পাঁচজন, বাকিরা হাসপাতালের নার্স ও কর্মকর্তা। টিকা সংরক্ষণের জন্য দুটি ঘর আছে। এখানে টিকা দেওয়ার দুটি বুথ, বিশ্রামঘর ও আইসিইউর ব্যবস্থা আছে।

মুগদা হাসপাতালের পরিচালক অসীম কুমার নাথ বলেন, এখানে টিকা নিতে প্রথমে নিবন্ধন করা হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেন্দ্রে টিকা নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। টিকা নেওয়ার পর যদি কারও বিরূপ প্রভাব পড়ে, তাহলে তাৎক্ষণিক সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিএনএ/এমএইচ