Bnanews24.com
Home » কামরাঙ্গীরচরে মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার
অপরাধ টপ নিউজ রাজধানী সব খবর

কামরাঙ্গীরচরে মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার

মরদেহ উদ্ধার

বিএনএ, ঢাকা: রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের নয়াগাঁও এলাকায় ফুলবাসি চন্দ্র দাস (৩৪) ও সুমি চন্দ্র দাস (১২) নামে মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি রহস্যজনক। তবে পুলিশ বলছে ,দুজনের গলায় দাগ থাকায় হত্যাকান্ড বলে মনে হচ্ছে।

ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে নিহত ফুলবাসির স্বামী কালু চন্দ্র দাসকে (৩৮) আটক করেছে পুলিশ। কালু চন্দ্র  এলাকায় ভ্যানগাড়িতে করে সবজি বিক্রি করত। মাঝে মাঝে ঠেলাগাড়ীও চালাত বলে নিহতের বড় মেয়ে  ঝুমা রানী দাস জানায়।

কালু চন্দ্র দাসের বড় মেয়ে ঝুমা ভোর পাঁচটার দিকে ঘুম থেকে উঠে মা ও ছোট বোনকে অচেতন অবস্থায় দেখে চিৎকার শুরু করে। এ সময় প্রতিবেশীরা চিৎকার শুনে এই অবস্থা দেখতে পায়। তারপর তারা নিকটস্থ থানার পুলিশকে খবর দেয়।

মরদেহের পাশে ছারপোকা মারা বিষ ও কিছু পলিথিন পাওয়া গেছে।মা মেয়ের গলায় দাগ দেখা গেছে।পুলিশ ধারণা করা হচ্ছে, পলিথিন প্যাচিয়ে ছারপোকা মারার বিষ মুখে ঢেলে দিয়ে তাদের হত্যা করা হয়। দুমেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে ভাড়া বাসায় থাকতেন কালু।

লালবাগ জোনের উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি)  মো. জসিম উদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, খবর পেয়ে কামরাঙ্গীরচর নয়াগাঁও ৩ নম্বর রোডের একটি বাসা থেকে মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করে হয়েছে।

কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মরদেহ দুটির গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে, এতে ধারণা করা হচ্ছে মা ও মেয়েকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। প্রতিবেশীদের মাধ্যমে জানতে পেরেছি পারিবারিক কলহেজেরে তাদের মধ্যে প্রায় ঝগড়া হতো। গতকাল রাতেও কথা কাটাকাটি হয়। এ সব বিষয় নিয়ে নিহত ফুলবাশির স্বামী ঘুমন্ত অবস্হায় তাদেরকে হত্যা করেছে। স্বামীকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ দুইটি ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিএনএনিউজ২৪, আহা, এসজিএন