Bnanews24.com
Home » নিষ্কণ্টক জমি না পেয়ে দুর্ভোগে আঁখি
খেলা জনদুর্ভোগ টপ নিউজ সব খবর

নিষ্কণ্টক জমি না পেয়ে দুর্ভোগে আঁখি

দুর্ভোগে আঁখি

বিএনএ ডেস্ক: সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে গোল্ডেন বুট জেতা আঁখি খাতুনকে বাড়ি তৈরির জন্য ৮ শতাংশ জমি উপহার দেন প্রধানমন্ত্রী। তবে সেই জমি নিষ্কণ্টক না হওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন আঁখি ও তার পরিবার। পুলিশ সদস্যসহ স্থানীয় লোকদের কাছে নানাভাবে হেনস্তা হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন আঁখি আক্তার।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পারকোলা গ্রামের আঁখি খাতুনের পরিবারের বসবাস। নানা জটিলতার পরে চলতি বছরের ৪ জুন আঁখির পরিবারের কাছে ৮ শতক জমির দলিল হস্তান্তর করেন পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার।

জমির দলিল পাওয়ার পর থেকেই শুরু হয় বিপত্তি। শাহজাদপুর উপজেলার দাবারিয়া মৌজার জমিটি স্থানীয় একটি মসজিদের সম্পত্তি বলে দাবি করে মামলা করেন স্থানীয় একজন। এরপর আদালত জমির ওপর ১৪৪ ধারা জারি করেছে।

আদলতের আদেশ নিয়ে ২১ সেপ্টেম্বর ফুটবলার আঁখি খাতুনের বাড়িতে গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেন শাহজাদপুর থানার এএসআই মামুন ও কনস্টেবল মুসা। এ ঘটনায় তাদেরকে প্রত্যাহার করে সিরাজগঞ্জ জেলা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

আঁখির বাবা আক্তার হোসেন জানান, বুধবার বিকেলে শাহজাদপুর থানার এএসআই মামুনসহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য তাদের বাড়িতে যায়। বলে আঁখিকে সরকারের দেয়া জমির ওপরে আদালত থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। পরে একটি কাগজে সই দিতে বলে।

সই দিতে না চাওয়ায় কটূক্তি ও থানায় ধরে নিয়ে যাবার হুমকি দেয়ার অভিযোগ করেন আক্তার হোসেন। এ ঘটনায় সিরাজগঞ্জ জেলা পুলিশ একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

আঁখির বাবা আক্তার জানান, দরিদ্র পরিবারে বেড়ে উঠা আঁখি দেশের হয়ে সাফল্য বয়ে এনেছে। প্রধানমন্ত্রীর উপহারের জমি পেয়ে ঘর বাঁধার স্বপ্ন দেখেছিল। তবে আইনি জটিলতায় এখন আবারও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়ন।

আঁখি আক্তার বলেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিষ্কণ্টক জমি বুঝিয়ে দেয়া হলে তাদের এত সমস্যায় পড়তে হতো না। তাছাড়া তাকে যে জমি দেয়া হয়েছে সেখানে মাটি ভরাট করতে গেলে তার আয়ের সব টাকা শেষ হয়ে যাবে। পরে ঘর তোলার মত সামর্থ আর থাকবে না। এ অবস্থান নিষ্কণ্টক ও ঘর তৈরির উপযোগী জমি দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আঁখি আক্তার।

বিএনএ/এ আর