ময়মনসিংহে ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ নেতা আহত

বিএনএ, ময়মনসিংহ :  ময়মনসিংহে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্টাবার্ষিকীর সভায় ধাক্কাধাক্কিকে কেন্দ্র করে মিছিল শেষে নবরাজ (১৮) নামে এক ছাত্রলীগ নেতাকে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় আরও এক ছাত্রলীগ নেতার আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিকালে মহানগরীর টাউন হল মোড়ে এই ঘটনা ঘটে। আহত নবরাজ মহানগরীর অমৃতবাবু রোডের মৃত গোবিন্দ রায়ের ছেলে। সে মহানগর ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক তাফসির আলম রাহাতের কর্মী।
পুলিশ ও স্থানীয় সুত্র জানায়, আওয়ামীলীগের প্রতিষ্টাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র্যালীর আয়োজন করে মহানগর আওয়ামীলীগ। সভা চলার সময় মহানগর ছাত্রলীগের দুই পক্ষের ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। আলোচনা সভা শেষে টাউল হল এলাকায় প্রতিপক্ষরা নবরাজকে ছুরিকাঘাত করে। পরে নবরাজকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এবিষয়ে মহানগর ছাত্রলীগের যুগ্ম আহব্বায়ক তাফসির আলম রাহাত বলেন, সভা চলাকালিন সময় দুই পক্ষের ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। পরে আমি নিজে গিয়ে বিষয়টি মিমাংসা করে দেই। পরে আমরা মিছিল নিয়ে কেন্দ্রের দিকে চলে আসি। কিন্ত, নবরাজ ওই খানে একাই ছিল। তাকে একা পেয়ে মহানগরের আহব্বায়ক নওশেল আহমেদের অনির ছেলেরা নবরাজকে মারধর ও ছুরিকাঘাত করে। নবরাজের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ১১ টি সেলাই লেগেছে। ঘটনার সময়ের ভিডিও ফুটেজ পেয়েছি, তাদের চিন্হিত করে নাম ঠিকানা সবই বলা হবে।
নওশেল আহমেদ অনি বলেন, সভা চলার সময় ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সাথে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। এসময় নবরাজ চাইনিজ কুড়াল দিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ছাত্রলীগের এক নেতাকে কুপ দেয়। এই ঘটনার জেরেই নবরাজকে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ছাত্রলীগের ছেলেরা মারধর করেছে। এখানে আমার কোন নেতাকর্মী ছিল না। এসময় নবরাজের কাছ থেকে চাইনিজ কুড়াল পুলিশ জব্দ করেছে বলেও দাবি করেন তিনি।
এ বিষয়ে মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম বলেন, সভা চলাকালিন সময়ে দুই পক্ষের ধাক্কাধাক্কির ঘটনায় একজন আহত হয়েছে, তাকে দেখতেই হাসপাতালে এসেছি।
কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ বলেন, একজন আহত হওয়ার খবর পেয়েছি। তবে, কেন এমন ঘটনা ঘটেছে জানতে পুলিশ কাজ করছে।
বিএনএ/ হামিমুর রহমান, ওজি
আরো পড়ুন

ঢাকায় আসলেন বেলজিয়ামের রানি

তুরস্কে ভূমিকম্পে নিহত ১০,বাড়ছে মৃতের সংখ্যা

বেলজিয়ামের রাণী আজ ঢাকা আসছেন