ঢাবির সব বর্ষের শিক্ষার্থী হলে উঠতে পারবেন

বিএনএ ঢাকা: আগামি ১০ অক্টোবর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আবাসিক হলগুলোতে সব বর্ষের শিক্ষার্থীরা উঠতে পারবেন। আর ১৬ অক্টোবর থেকে সশরীরে ক্লাস পরীক্ষা নেয়া হবে।

আরো পড়ুন

ব্রাজিল ৪ গোলে এগিয়ে

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আকতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় প্রো-উপাচার্য (অতিরিক্ত) ড. মো. আবদুস সামাদ, প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, বিভিন্ন হলের প্রোভোস্ট-ওয়ার্ডেন ও প্রক্টর উপস্থত ছিলেন।

সভা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, অন্তত এক ডোজ টিকা নেয়ার প্রমাণপত্র দেখানো সাপেক্ষে ১০ অক্টোবর থেকে হলে উঠতে পারবেন প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। এদিন সকাল থেকে কমপক্ষে এক ডোজ টিকা নেয়ার সনদ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র দেখানো সাপেক্ষে স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য আবাসিক হল খোলা হয়েছে৷ ১৬ অক্টোবর থেকে সব বিভাগ-ইনস্টিটিউটের শ্রেণি কার্যক্রম (ক্লাস-পরীক্ষা) শুরু হবে বলে জানান তিনি।

প্রো-উপাচার্য বলেন, শনিবারসহ সপ্তাহে ৫ দিনের পরিবর্তে ৬ দিন ক্লাস নেয়া হবে। ক্লাসরুমে উপস্থিত হওয়ার জন্য টিকা নেয়ার কার্ড প্রদর্শনসহ শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সেশনজট অবসানের লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

এছাড়া, শিক্ষার্থীদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) প্রাপ্তির জন্য ৭ অক্টোবর টিএসসিতে ভোটার রেজিস্ট্রেশন কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। যেসকল শিক্ষার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তারা এই কেন্দ্র থেকে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে দ্রুত এনআইডি করতে পারবেন বলে জানানো হয়।

এরআগে করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধ থাকার পর  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খুলে দেয়া হয়। মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে থেকে নিজ নিজ হলে উঠতে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের আগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হলে শুধু স্নাতক শেষ বর্ষ এবং স্নাতকোত্তরের আবাসিক শিক্ষার্থীরা উঠতে পারছিলেন। তবে নতুন সিদ্ধান্তের কারণে অন্য বর্ষের শিক্ষার্থীদের হলে উঠার বাধা কেটে গেল।

বিএনএনিউজ/আরকেসি