Bnanews24.com
Home » ফেঁসে যেতে পারেন ট্রাম্প!
টপ নিউজ বিশ্ব সব খবর

ফেঁসে যেতে পারেন ট্রাম্প!

ফেঁসে যেতে পারেন ট্রাম্প!

বিএনএ, বিশ্ব ডেস্ক : যে কোন সময় ফেঁসে যেতে পারেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জর্জিয়ার নির্বাচনী কর্মকর্তাকে নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার কথা বলায় আইনি ঝামেলায় পড়তে যাচ্ছেন তিনি। ইতিমধ্যেই দেশটির দুজন আইনপ্রণেতা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এফবিআইর বরাবর চিঠি দিয়েছেন।

টেড লিউ ও ক্যাথলিন রাইস কংগ্রেসের এই দুই ডেমোক্র্যাট সদস্য ৪ জানুয়ারি এফবিআই পরিচালক ক্রিস ওরেই বরাবর পত্র দিয়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক তদন্ত শুরু করার আহ্বান জানিয়েছেন।

যে কারণে ফেঁসে যেতে পারেন ট্রাম্প :
ট্রাম্প ২ জানুয়ারি জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের সেক্রেটারি অব স্টেট ব্র্যাড রাফেনসপারজারকে ফোন করেন। তাঁদের দীর্ঘ ফোনালাপের অডিও দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট গত রোববার প্রথম প্রকাশ করলে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।

নিউইয়র্কের সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল প্রিট ভারারা বলেছেন, ফেডারেল ও জর্জিয়ার নির্বাচনী আইনে পরিষ্কার করে বলা আছে, জ্ঞানত ভোট জালিয়াতি-কারচুপিতে ইন্ধন দেওয়া বা উৎসাহিত করা দণ্ডযোগ্য অপরাধ।

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, ট্রাম্প কেন যে প্রেসিডেন্ট হিসেবে থেকে যেতে চাইছেন, তা তাঁর বোধগম্য নয়।

খেলা শেষ হয়ে যায়নি : ট্রাম্প

নির্বাচনে এখনো পরাজয় না–মানা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, খেলা শেষ হয়ে যায়নি। তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র তৃতীয় বিশ্বের দেশের মতো হয়ে গেছে।

চারটি অঙ্গরাজ্যের নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার মামলা সুপ্রিম কোর্ট দিন কয়েক আগে খারিজ করেন। এরপরই ট্রাম্প শিবিরের শেষ আশা ভেস্তে যায়। তবে ট্রাম্প নতুন নতুন বাহানা সৃষ্টি করছেন। ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি জুলিয়ানিসহ তাঁর শিবির থেকে বলা হচ্ছে, স্থানীয় পর্যায়ে নির্বাচন নিয়ে তাদের আরও অনেক মামলা আছে। সুপ্রিম কোর্টে ভিন্ন মামলা নিয়ে নতুন করে যাওয়ার আভাস দিয়েছেন তাঁরা।

১৩ ডিসেম্বর ট্রাম্প ফক্স নিউজকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। সেখানে তিনি জয়ের জন্য লড়াই চালিয়ে যাওয়ার কথা উল্লেখ করে বলেছেন, খেলা খতম হয়ে যায়নি।

গণতন্ত্রকে হুমকির মধ্যে ফেলে দেওয়া হচ্ছে : ওবামা

সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, ক্ষমতায় থাকার জন্য গণতন্ত্রকে হুমকির মধ্যে ফেলে দেওয়া হচ্ছে। ট্রাম্পের নাম উল্লেখ না করে ওবামা তাঁর টুইট বার্তায় বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রের মৌলিক ভিত্তিকেই আজ হুমকির মধ্যে ফেলে দেওয়া হয়েছে। গণতন্ত্রকে রক্ষার জন্য জনগণকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

রিপাবলিকান সিনেটর টেড ক্রুজসহ ১১ জন প্রভাবশালী সিনেটর অন্য আইনপ্রণেতাদের নিয়ে ৬ জানুয়ারি কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে ঝামেলা পাকানোর প্রয়াস অব্যাহত রেখেছেন।

সিনেটর ক্রুজসহ অন্যদের দাবি, নির্বাচনে জালিয়াতি হয়েছে কি না, তা একটি কমিশন গঠন করে তদন্ত করা হোক। সে পর্যন্ত ইলেক্টোরাল ভোটের ফলাফল স্থগিত রাখা হোক। ভোটে অনিয়ম পাওয়া গেলে অঙ্গরাজ্য আইনপ্রণেতাদের ইলেক্টোরাল ভোট নিয়ে সিদ্ধান্তের দায়িত্ব দেওয়ার দাবি জানান তাঁরা।

উত্তপ্ত হয়ে ওঠছে ওয়াশিংটন :

৬ জানুয়ারি ঘিরে ওয়াশিংটন উত্তপ্ত হয়ে ওঠার লক্ষণ স্পষ্ট হয়ে উঠছে। ট্রাম্প পুরো আমেরিকা থেকে তাঁর সমর্থকদের ওয়াশিংটন ডিসিতে জড়ো করছেন। প্রাউড বয়েজসহ অন্য রক্ষণশীল ট্রাম্প-সমর্থকেরা বড় ধরনের মহড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

ওয়াশিংটন ডিসিতে যেকোনো ধরনের সহিংসতা মোকাবিলার জন্য ন্যাশনাল গার্ড তলব করা হয়েছে। রক্ষণশীল সংগঠন প্রাউড বয়েজের নেতা এনরিক টেরিওকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ওয়াশিংটন ডিসির মেয়র মুরিয়েল বাউজার জানিয়েছেন, ৬ জানুয়ারি রাজধানীতে ট্রাম্প-সমর্থকদের সম্ভাব্য সহিংসতা নিয়ন্ত্রণের জন্য ৩৪০ জন ন্যাশনাল গার্ডের সদস্য ডাকা হয়েছে।

যে কারণে গ্রেফতার করা হয়েছে এনরিককে :

৪ জানুয়ারি নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, প্রাউড বয়েজের নেতা এনরিক টেরিওকে গ্রেফতার করা হয়েছে ওয়াশিংটন ডিসি থেকে। গত ১২ ডিসেম্বর ওয়াশিংটন ডিসিতে একটি সম্পত্তি ভাঙচুর মামলায় তাঁর নামে অভিযোগ আনা হয়েছে।

গ্রেফতারের সময় এনরিক টেরিওর কাছে দুটি উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন আগ্নেয়াস্ত্র পাওয়া গেছে। এ নিয়ে পৃথক আরেকটি অভিযোগ আনা হয়েছে এনরিক টেরিওর নামে।

ট্রাম্পকে নিয়ে বাইডেন মন্তব্য :

গতকাল সন্ধ্যায় বাইডেন জর্জিয়ায় দেওয়া বক্তৃতায় শুধু বলেছেন, ট্রাম্প কেন যে প্রেসিডেন্ট থাকতে ইচ্ছুক, তা তাঁর বোধগম্য নয়। প্রেসিডেন্ট হিসেবে তিনি তো কোনো কাজ করতে ইচ্ছুক নন বলে বাইডেন মন্তব্য করেন।

বিএনএনিউজ/জেবি