চবিতে ৪ দিনব্যাপি প্রতীকী জাতিসংঘ সম্মেলন উদ্বোধন

বিএনএ, চবিঃ “সহিংসতা রোধে শান্তিপূর্ণ সংহতির মাধ্যমে মানবাধিকার নিশ্চিতকরণ” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বিগত বছরগুলোর ন্যায় এবছরও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতীকী জাতিসংঘ সংস্থার (সিইউমুনা) আয়োজনে ‘চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতীকী জাতিসংঘ সম্মেলন ২০২৩ (CUMUN23) শুরু হয়েছে। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুর ২টায় ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের মিলনায়তনে ৪ দিনব্যাপি এ সম্মেলনের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন সিউইমুনার মহাসচিব দেবজ্যোতি ধর।

আরো পড়ুন

পাঠ্যপুস্তকের ভুল খুঁজতে দুই কমিটি

সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের পাবলিক এবং প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রায় চার শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করার পাশাপাশি ভারত, আফগানিস্তান, পূর্ব তিমুর, মালয়েশিয়া থেকে প্রতিনিধিরাও এ সম্মেলনে অংশ নিচ্ছে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক সিরাজউদ্দৌলা, আইন অনুষদের ডিন এ. বি. এম. আবু নোমান। লোকপ্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক ড.আমীর মুহাম্মদ নসরুল্লাহ।

প্রফেসর সিরাজউদ্দৌলাহ বলেন, আপনারই দেশের ভবিষ্যৎ। আপনাদের হাত ধরে দেশ এগিয়ে যাবে। আপনাদের মাধ্যমে মায়ানমারের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী ইস্যুতে সমাধান আসবে। আজকের জাতিসংঘ সংসদে অংশগ্রহণকারী তরুণ প্রতিনিধিবৃন্দের অভিজ্ঞতা ও মতামতের মাধ্যমে বৈশ্বিক সমস্যা সমাধানে ভূমিকা রাখবে। তাদের যুগোপযোগী চিন্তা ও গবেষণার কারণে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব হবে।

অধ্যাপক এ.বি.এম. আবু নোমান বলেন, জাতিসংঘ বিশ্বশান্তি ও মানবাধিকার রক্ষায় বিশ্বব্যাপী কাজ করে থাকে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতিসংঘের ছায়া সংগঠনের কার্যক্রমের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মানবাধিকার ও ন্যায় বিচার চর্চা করতে পারবে। মানবজাতির কল্যাণে কাজ করতে পারবে।

ড.আমীর মুহাম্মদ নসরুল্লাহ। বিশ্ববিদ্যালয় হলো জ্ঞান-বিজ্ঞান শিক্ষার একটি বড় জায়গা। আমি বিশ্বাস করি যে বিশ্বে মানবাধিকার রক্ষায় আজকের প্রতিনিধিগণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সমতা না থাকায় বিশ্বে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। মানবাধিকার রক্ষার জন্য প্রয়োজন সমতা।

১০টি কমিটি নিয়ে এবারের সম্মেলন। কমিটিগুলো হল নিরাপত্তা পরিষদ (UNSC), জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ-১ (DISEC), জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশন (UNHRC), জাতিসংঘ উন্নয়ন কার্যক্রম (UNDP), জাতিসংঘ জলবায়ু বিষয়ক কাঠামো (UNFCCC), বাণিজ্য ও উন্নয়ন সংক্রান্ত জাতিসংঘ কমিটি (UNCTAD), অপরাধ প্রতিরোধ ও ফৌজদারী বিচার কমিশন (CCPJ), পেট্রোলিয়াম রপ্তানিকারক সংস্থা (OPEC), বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ, আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা (IP)।

এ সম্মেলনে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (চবিসাস) নলেজ পার্টনার হিসেবে থাকছে জাতিসংঘ বাংলাদেশ। সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির ডিরেক্টর জেনারেল ইফতে খায়রুল প্রান্ত, চিফ অফ স্টাফ আরশি ইরতিজা, চার্জ দি অ্যাফেয়ার্স অরিজিত বিশ্বাস এবং ইউএসজি অফ মিডিয়া ও ক্রিয়েটিভ ব্র‍্যান্ডিং সৈয়দা ফাইরুজ হোসেন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছায়া জাতিসংঘ ক্লাব, ২০১৪ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এই ক্লাবের যাত্রা শুরু হয়। শুরু থেকে এই ক্লাবটি শিক্ষার্থীদের মধ্যে কূটনীতিক কার্যক্রম সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারনা দেওয়ার পাশাপাশি নেতৃত্ব সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখছে৷

বিএনএ/ সুমন, এমএফ