চোখে গুলি, সীমান্তে বাংলাদেশি যুবকের মরদেহ

বিএনএ, ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁওয়ের বলিয়াডাঙ্গী উপজেলার নাগরভিটা সীমান্তের নাগর নদী থেকে রমজান আলী (৩০) নামে এক বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) বিকালে তার মরদেহটি উদ্ধার করে বলিয়াডাঙ্গী থানা পুলিশ। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিহতের স্বজনরা বলছেন, বিএসএফের গুলিতে রমজানের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে।

নিহত রমজান আলী রানীশংকৈল উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের কাশিডাঙ্গা গ্রামের ভাতু মোহাম্মদের ছেলে।

নিহতের স্ত্রী মসলেমা খাতুন ও মামাশ্বশুর আব্দুল মান্নান জানান, রমজান গেল সোমবার বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেনি। সকালে তার মরদেহ সীমান্ত নদীর বালু চরে দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুল হক প্রধান বলেন, “নিহ‌ত ব‌্যক্তির চো‌খে গু‌লির চিহ্ন পাওয়া গে‌ছে।”

ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. শহিদুল ইসলাম জানান, দুপুরে স্থানীয়রা ভারতীয় সীমান্তের উত্তর দিনাজপুর তিনগাঁও ক্যাম্পের ৩৭৫ এস পিলার এলাকার কাঁটাতারের এপারে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে নাগর নদীর চরে রমজান আলীর মৃতদেহটি দেখতে পেয়ে বিজিবিকে খবর দেয়। পরে বিজিবি মৃতদেহটি উদ্ধার করে পুলিশকে হস্তান্তর করে। মৃতদেহটি নদীর চরের বালুতে অর্ধপোতানো অবস্থায় পাওয়া যায় এবং মৃতদেহে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

তবে তাকে বিএসএফ হত্যা করেছে নাকি অভ্যন্তরীণ ঘটনার কারণে মৃত্যু হয়েছে সেটা নিশ্চিত নয় বলে জানান শহীদুল ইসলাম।

 

বিএনএনিউজ/এইচ.এম।