28 C
আবহাওয়া
১১:০৮ অপরাহ্ণ - জুলাই ২২, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » সড়ক-মহাসড়কে শৃঙ্খলা না ফেরালে দুর্ঘটনা কমানো সম্ভব নয়

সড়ক-মহাসড়কে শৃঙ্খলা না ফেরালে দুর্ঘটনা কমানো সম্ভব নয়

সড়ক-মহাসড়কে শৃঙ্খলা না ফেরালে দুর্ঘটনা কমানো সম্ভব নয়

বিএনএ, ঢাকা: মোটরযান আইন অনুযায়ী মহাসড়কে যানবাহনের সর্বোচ্চ গতিসীমা ৮০ কিলোমিটার নির্ধারণ করে দিয়েছে জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিল। শহর ও লোকালয়ের সড়কগুলোতে এ গতিসীমা সর্বোচ্চ ৪০ কিলোমিটার। এজন্য যানবাহনগুলোতে গতি নিয়ন্ত্রক যন্ত্র রাখাও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে এবং এ যন্ত্রের ওপর নির্ভর করেই মোটরযানের ফিটনেস সনদ দেওয়া হয়। চালকদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে ২৪৩টি ব্ল্যাকস্পটে এবং প্রশিক্ষণ দিতে বলা হয়েছে। দুর্ঘটনার জন্য শাস্তিরও বিধান রয়েছে। তবুও বেপরোয়াই চলছে গাড়ি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সড়কে গতিসীমা বিজ্ঞান সম্মত নয়, দুর্ঘটনা কমাতে আগে ফেরাতে হবে শৃঙ্খলা। এ অবস্থায় প্রয়োজনে নীতিমালা সংশোধনের ব্যবস্থা থাকতে হবে।

সাভারের ঢাকা-আরিচা ও নবীনগর-চন্দ্রা দুই মহাসড়কে আগেরমতোই বেপরোয়া গতিতে চলাচল করছে যানবাহন। একই অবস্থা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কেও। চালকরা বলছেন, সড়কের পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে চালাতে হয় যানবাহন।

এক পিকআপ ভ্যানচালক বলেন, সরকার বেঁধে দিছে ৮০ কিলোমিটার। কিন্তু এই গতিতে মহাসড়কে সবসময় চলা আমাদের জন্য সম্ভব না।

বুয়েট পরিবহন বিশেষজ্ঞ ও অধ্যাপক ড. এম শামসুল হক বলেন, ‘স্পিড ম্যানেজমেন্টের দিক দিয়ে আমরা যোজন যোজন দূরে আছি। গতির এই প্রজ্ঞাপনটা আরও বিশৃঙ্খলা তৈরি করবে। বিশেষ করে পুলিশের ক্ষেত্রে এটা অর্জনযোগ্য হবে না। বিভিন্ন গাড়ির বিভিন্ন গতি থাকে। আর রাস্তার মধ্যেও লেখা নাই কোন রাস্তায় কোন গতিতে চলতে হবে।’

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, দুর্ঘটনা রোধ ও চালকদের শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে নীতিমালা করা হয়েছে। নতুন সব সড়কেই লেন মার্ক করা হবে। প্রয়োজনে গতিসীমা সংশোধনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বিএনএনিউজ/ রেহানা/ বিএম/ হাসনা

Loading


শিরোনাম বিএনএ