থার্টি ফার্স্টে সিএমপির  ১৬ নির্দেশনা

বিএনএ, চট্টগ্রাম : থার্টিফার্স্ট নাইট উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) পক্ষ থেকে ১৬টি নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

আরো পড়ুন

১. রাস্তা, ফ্লাইওভার, ভবনের ছাদ এবং প্রকাশ্য স্থানে কোনো ধরনের জমায়েত/সমাবেশ/উৎসব করা যাবে না।

২. থার্টি ফার্স্ট নাইট উপলক্ষে অনুমোদিত স্থানে আয়োজিত সভা, সমাবেশ এবং ধর্মীয়, সামাজিক, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসমূহে করোনা সংক্রান্ত সরকারি নির্দেশনাসমূহ ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে।

৩. উন্মুক্ত স্থানে নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে কোনো ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন বা সমাবেশ বা নাচ, গান ও কোন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা যাবে না।

৫. ৩১ শে ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরদিন সকাল ১০টা পর্যন্ত পতেঙ্গা সী-বীচ ও পারকি বীচ এলাকায় কাউকে অবস্থান করতে দেয়া হবে না।

৬. ৩১ শে ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরদিন সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত লাইসেন্সকৃত সকল বার ও মদের দোকান বন্ধ থাকবে।

৮. আনন্দ উদযাপনের মধ্যে সমাজ ও সংস্কৃতিতে প্রত্যাশিত ও গ্রহণযোগ্য শালীনতা বজায় রাখতে হবে।

৯. মাদকদ্রব্য সেবন থেকে বিরত থাকতে হবে। মাদকাসক্ত অবস্থায় কাউকে পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

১০. সকল অনুষ্ঠানে নারীদের জন্য পৃথক ব্যবস্থা রাখতে হবে এবং নারীদের প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করতে হবে।

১১. নৈতিক মূল্যবোধ পরিপন্থী কর্মকাণ্ড হতে বিরত থাকতে হবে।

১২. অশোভন আচরণ এবং বেআইনি কার্যকলাপ হতে বিরত থাকতে হবে।

১৩. হোটেলে ডিজে পার্টির নামে কোনো স্পেস বা কক্ষ ভাড়া দেওয়া যাবে না।

১৪. জনগণের শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হয় এমন যে কোনো কর্মকাণ্ড পরিহার করতে হবে।

১৫. ৩১ শে ডিসেম্বর রাত ১০টার পর সকল ফাস্ট ফুডের দোকানসহ মার্কেট বন্ধ রাখতে হবে।

১৬. বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টা থেকে শনিবার (১ জানুয়ারি) সকাল ১০টা পর্যন্ত সকল প্রকার লাইসেন্সকৃত আগ্নেয়াস্ত্র বহন না করার জন্য সংশ্লিষ্ট নগরবাসীর প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

বিএনএনিউজ/এইচ.এম।