Bnanews24.com
রোহিঙ্গা সমস্যা

রোহিঙ্গা শিবিরে আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ব্র্যাকের বিশেষ উদ্যোগ

বিএনএ ডেস্ক:কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শিবিরে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর জন্য পুনর্বাসন কার্যক্রম অব্যাহত আছে। সরকারের সহায়তায় ব্র্যাকসহ অন্যান্য বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ও দাতা সংস্থাগুলোর সমন্বিত উদ্যোগে চলছে খাবার বিতরণ, বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ, শেল্টার নির্মাণসহ অন্যান‌্য জরুরি কার্যক্রম।

সোমবার (২৯ মার্চ) উখিয়ার কুতুপালংয়ের বালুখালি রোহিঙ্গা শিবিরের ৮ ও ৯ নম্বর ক্যাম্প ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

ব্র্যাকের পক্ষ থেকে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ইতোমধ্যে (২৮ মার্চ পর্যন্ত) ৩৪ হাজার লিটার খাবার পানি বিতরণ, ৪৯টি গভীর নলকূপ ও ২৩৯টি অগভীর নলকূপ সংস্কার এবং ৩১৯টি ল্যাট্রিন মেরামত করা হয়েছে।

এদিকে, শনিবার (২৭ মার্চ) বালুখালিতে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ৯ নম্বর ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন ব্র্যাকের মানবিক সহায়তা কর্মসূচির (এইচসিএমপি) এরিয়া ডিরেক্টর হাসিনা আখতার হকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এর আগে গত ২৪ মার্চ ওই ক্যাম্প পরিদর্শন করেন ব্র্যাকের এইচসিএমপি’র কর্মসূচি প্রধান (ভারপ্রাপ্ত) রবার্টস সিলা মুথিনিসহ সংশ্লিষ্টরা। সোমবার ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন ক্যাম্প পরিদর্শন করেন ব্র্যাকের এইচসিএমপি’র অপারেশন হেড সাহানা হায়াতসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিনিধিরা।

জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর সূত্র জানায়, অগ্নিকাণ্ডের আগে ওই রোহিঙ্গা শিবিরে বাস করছিলেন ১ লাখ ২৬ হাজার ৩৮১ জন।

এনজিওগুলোর সমন্বয়কারী সংস্থা ইন্টার সেক্টর কো-অর্ডিনেশন গ্রুপের (আইএসসিজি) তথ‌্য অনুযায়ী, রোহিঙ্গা শিবিরে অগ্নিকাণ্ডে প্রায় ১০ হাজার ঘর পুড়েছে। গৃহহীন হয়েছেন প্রায় ৪৫ হাজার মানুষ।

উল্লেখ্য, গত ২২ মার্চ বিকেলে বালুখালির রোহিঙ্গা শিবিরের ৮ ডব্লিও, ৮ই, ৯ ও ১০ নম্বর রোহিঙ্গা শিবিরে অগ্নিকাণ্ড ঘটে। বিজ্ঞপ্তি