বছরের শেষ দিনে থাকবে শৈত্যপ্রবাহ

ঋতু বদলের পালাক্রমে চলছে শীতকাল। পঞ্জিকামতে ডিসেম্বর ও জানুয়ারি মাসে শীত থাকে । তাই বাংলাদেশে পুরনো বছরের বিদায় এবং নতুন বছরের আগমন ঘটবে শীতের মধ্য দিয়েই। তবে এবার দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শৈত্যপ্রবাহের মধ্য দিয়ে ইংরেজি নতুন বছরের আগমন ঘটবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

আরো পড়ুন

গণতন্ত্র মুক্তি দিবস আজ

নেইমার ফিরলেন দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে

আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলের ওপর দিয়ে বইতে শুরু করেছে শৈত্যপ্রবাহ। মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহের মধ্যেই গত দুই দিনের তুলনায় তাপমাত্রা আরও কিছুটা কমেছে। কনকনে ঠান্ডায় কাঁপছে দেশ। আগামী দুই দিন তাপমাত্রা একই রকম থাকতে পারে। এরপর আবারও কমে যাবে তাপমাত্রা।

আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান বলেন, ‘এই শৈত্যপ্রবাহ আরও দুদিন থাকবে অর্থাৎ ৩০ ও ৩১ জানুয়ারি। এ সময় তাপমাত্রার খুব বেশি হেরফের হবে না। তবে ১ ও ২ জানুয়ারি তাপমাত্রা আরও কিছুটা কমে যেতে পারে। ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নামতে পারে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।’

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে,দিনাজপুর, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, যশোর, কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা, বরিশাল, গোপালগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল অঞ্চলের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকবে। আগামি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের আভাস নেই। গতকাল দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়বে।সারাদেশে রাত এবং দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকবে।

বিএনএ/ এমএইচ