মাতারবাড়িতে মঙ্গলবার ভিড়ছে প্রথম জাহাজ ‘ভেনাস ট্রাইয়াম্প’

মাতারবাড়িতে মঙ্গলবার ভিড়ছে প্রথম জাহাজ ‘ভেনাস ট্রাইয়াম্প’

অর্থ-বাণিজ্য এক নজরে চট্টগ্রাম পোর্ট ও শিপিং সব খবর

বিএনএ,চট্টগ্রাম: দেশের প্রথম গভীর সমুদ্র বন্দর মহেশখালীর মাতারবাড়িতে ট্রায়াল হিসেবে প্রথম জাহাজ ‘ভেনাস ট্রাইয়াম্প’ ভিড়ছে আগামীকাল মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর)। গত ২২ ডিসেম্বর পানামার পতাকাবাহী জাহাজটি ইন্দোনেশিয়ার পেলাভুবন সিলেগন বন্দর থেকে স্ট্রিম জেনারেটরের যন্ত্রাংশ নিয়ে মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দরের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে।

আগামীকাল (মঙ্গলবার) সকাল ৭টায় মাতারবাড়ি পৌঁছানোর কথা রয়েছে। এরপর গভীর সাগর থেকে জাহাজটি চালিয়ে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য অস্থায়ীভাবে নির্মিত জেটিতে নেয়ার কাজটি করবেন বন্দরের পাইলটরা। সি-শোর মেরিন প্রাইভেট লিমিটেডের জাহাজটির দেশীয় এজেন্ট হিসেবে কাজ করছে এনসেইন্ট স্টিমশিপ লিমিটেড এবং স্টিবেটর হিসেবে কাজ করবেন গ্রিন এন্টারপ্রাইজ।

বন্দর সূত্রে জানা যায়, মাতারবাড়িতে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য নির্মিত জেটিতে জাহাজ ভিড়ানোর সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ। যেহেতু মাতারবাড়ি পর্যন্ত চট্টগ্রাম বন্দর জলসীমা বিস্তৃত তাই সেখানে জাহাজ ভিড়লে ‘পোর্ট অব কল’ ধরা হবে চট্টগ্রাম বন্দরকেই। অর্থাৎ যাবতীয় মাসুল চট্টগ্রাম বন্দরই পাবে। জাহাজের পাইলটিং করবে চট্টগ্রাম বন্দরই। জেটিতে জাহাজ ভিড়ানো সমন্বয় করতে গত ২৩ ডিসেম্বর বন্দর ভবনে একটি সভা করেছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ। সেখানে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য আসা জাহাজ কিভাবে পরিচালিত হবে তার একটি গাইডলাইন দেয়া হয়েছে। বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম বন্দর সদস্য ( হারবার ও মেরিন) কমডোর মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, জেটিতে জাহাজ ভিড়ানোর জন্য আমরা পুরোপুরি প্রস্তুত। প্রবেশপথে বয় বসানো থেকে শুরু করে সব কাজ শেষ। এখন মঙ্গলবার একটি পণ্যবাহী জাহাজ ভিড়বে। পর্যায়ক্রমে আরো জাহাজ আসবে। তবে কি পরিমান জাহাজ জেটিতে আসবে তার চাহিদা এখনো আমরা পাইনি।

জানা যায়, জাহাজ ভেড়ানোর জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে আড়াইশ মিটার প্রস্থ, ১৮ মিটার গভীরতার ১৪ কিলোমিটার দীর্ঘ চ্যানেল। বঙ্গোপসাগর থেকে এই চ্যানেল দিয়েই জাহাজ বন্দর জেটিতে প্রবেশ করবে। এছাড়া চট্টগ্রাম বন্দরের মেরিন বিভাগ গভীর সাগর থেকে জাহাজগুলো চ্যানেল দিয়ে জেটিতে প্রবেশের জন্য স্থাপন করেছে পথ নির্দেশক ছয়টি বয়।

উল্লেখ, চ্যানেলের এক পাশে নির্মিত হয়েছে দুইটি জাহাজ জেটি, যেগুলো ব্যবহৃত হবে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণ সামগ্রী উঠানামার কাজে। সেই জেটি দুটির মধ্যে একটিতে ভিড়ছে প্রথম বিদেশি জাহাজ ‘ভেনাস ট্রাইয়াম্প’। আর অপর পাশে গড়ে উঠবে মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর। এই সমুদ্র বন্দর চালু হবে ২০২৫ সালে। কিন্তু তার আগেই ব্যবহার শুরু হচ্ছে সমুদ্র বন্দরের জন্য নির্মিত চ্যানেল বা জাহাজের প্রবেশপথ।

বিএনএনিউজ/মনির

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *