Bnanews24.com
চট্টগ্রাম টপ নিউজ ভিডিও সংবাদ সংগঠন সংবাদ সব খবর

‘হেফাজতের নতুন কমিটি হবে অরাজনৈতিক আলেমদের নিয়ে'(ভিডিও)

বিএনএ,চট্টগ্রাম: অরাজনৈতিক আলেমদেরকে নিয়ে হেফাজতে ইসলামের নতুন কমিটি করা হবে। কমিটিতে রাজনৈতিক পরিচয়ধারী নেতাদের রাখা হবে না।রোববার (২৫ এপ্রিল) রাতে সদ্য বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা নাসির উদ্দিন মুনির গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

মাওলানা মাঈনুদ্দীন রুহী

ফেসবুক লাইভে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী কমিটির বিলুপ্ত ঘোষণা দেয়ার প্রায় এক ঘন্টা পরই হেফাজতের বিলুপ্ত কমিটির কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মাঈনুদ্দীন রুহী নিজের ফেসবুক বার্তায় বলেন, গত ২০২০ ইংরেজি ১৫ নভেম্বর তথাকথিত হেফাজতে ইসলামের কাউন্সিলের মাধ্যমে সিন্ডিকেট কমিটি গঠন করা হয়েছিল। যে অবৈধ কমিটি গঠন করা হয়েছিল। আমি বারবার অনেক লাইভে এসে বলে এসেছিলাম। এটা একটা অবৈধ কমিটি, সিন্ডিকেট কমিটি। এটা একটা রাজনৈতিক উচ্চবিলাস এবং হেফাজতের মূল লক্ষ্য উদ্দেশ্যেকে বিসর্জন দিয়ে এ কমিটিকে গঠন করা হয়েছে। তথাকথিত সম্মেলনের মাধ্যমে একটি কমিটি গঠনের চার মাস সাড়ে চারমাসের মাথায় এসে দুঃখজনকভাবে হলেও সত্যি বাস্তবতাকে উপলব্ধি করে এ কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে। এ কমিটিকে বিলুপ্তি ঘোষণা করেছেন কমিটির আমির সাহেব।

তিনি বলেন, আমি এ কমিটি বিলুপ্ত করার যে ঘোষণা এসেছে সেই ঘোষণাকে স্বাগত জানাই। আমি দেশবাসীকে আল্লামা আহমদ শফী (রহ.) এর মূলধারা হেফাজতে ইসলাম, সম্পূর্ণ অরাজনৈতিকভাবে দেশের উন্নয়ন ও দেশের সমৃদ্ধি এবং দেশের ঐক্যবদ্ধ স্বাধীনতার অতন্দ্র প্রহরী হিসেবে হেফাজতে ইসলাম আগামীতে ইসলামের জন্য এবং ইসলামের প্রচার প্রসারের জন্যকাজ করবে। ইসলামী আকিদা বিশ্বাস সংরক্ষণের জন্য হেফাজতে ইসলাম কাজ করবে। সে লক্ষ্যে আমরা অতি শিগগিরই আল্লামা আহমদ শফী সাহেবের নীতি আদর্শের হেফাজতে ইসলামের গঠন করব।

মাঈনুদ্দীন রুহী বলেন, যে হেফাজতে ইসলামের কমিটি আমাদের পূর্ব পুরুষরা যেভাবে ইসলামকে সংরক্ষণ করেছেন। ইসলামের ভাবধারা, ইসলামের ভাবগম্ভীর্যকে সংরক্ষণ করেছেন। সেই পদাঙ্কন অনুসরণ করে আমরা হেফাজতের ইসলামের কমিটি শিগগিরই পুনঃগঠন করব এবং সংস্কার করব। ইনশাআল্লাহ। আপনারা দেশবাসী আমাদের সাথে থাকবেন। কওমি ওলামায়ে কেরাম আমাদের সাথে থাকবেন। কওমি ওলামায়ে কেরাম ঐক্যবদ্ধ থাকবেন। যেকোন পরিস্থিতিতে যেকোনও সংকটে আল্লামা আহমদ শফী সাহেবের নীতি আদর্শকে বুকে ধারণ করে আমরা পথ এগিয়ে যাব। এ চলার পথে আমরা সব বাধা বিপত্তিকে ডিঙিয়ে আমরা এগিয়ে যাব। আশা করি দেশবাসী আমাদের সাথে থাকবেন।

এর আগে রাত ১১টার ফেসবুকে একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী ও নুরুল ইসলাম জিহাদীর নেতৃত্বাধীন হেফাজতে ইসলামের বর্তমান কমিটি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। এসময় আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন হেফাজত আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

ভিডিও বার্তায় আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন- প্রিয় দেশবাসী, দেশের বর্তমান সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বৃহত্তম অরাজনৈতিক দ্বীনি সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটির গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের পরামর্শক্রমে বর্তমান কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হল।

ভিডিওবার্তায় তিনি আরো বলেন, ইনশাআল্লাহ- একটি আহবায়ক কমিটির মাধ্যমে হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

উল্লেখ, ২০১০ সালে হেফাজতে ইসলাম একটি অরাজনৈতিক সংগঠন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করলেও সাবেক আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর মৃত্যুর পর হেফাজতে ইসলাম রাজনৈতিক সংগঠনে রূপ নেয়। পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ হেফাজতের কমিটিতে যুক্ত হতে থাকেন। যার ফলশ্রুতিতে নতুন নেতৃবৃন্দ সরকারবিরোধী নানা কর্মকাণ্ড শুরু করেন। ফলে সরকারও বাধ্য হয়ে ইউটার্ন নেয়। সু সম্পর্ক ছিন্ন করে কঠোরভাবে দমন করতে শুরু করে হেফাজতকে। ইতোমধ্যে কেন্দ্রিয় ১২ জন নেতাসহ গ্রেপ্তার করা হয় অন্তত ১৮ জনের বেশি প্রথম সারির নেতাকে।

বিএনএনিউজ/মনির