Bnanews24.com
Home » ছাত্র লাঞ্চনার ঘটনায় জাবির দুই ছাত্রী বহিষ্কার
টপ নিউজ শিক্ষা সব খবর

ছাত্র লাঞ্চনার ঘটনায় জাবির দুই ছাত্রী বহিষ্কার

জাবির উইকেন্ডের শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন

বিএনএ,জাবি: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) স্নাতকোত্তরের এক শিক্ষার্থীকে চড় মারার ঘটনায় অভিযুক্ত দুই ছাত্রীকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

অভিযুক্ত ছাত্রী সুমাইয়া বিনতে ইকরাম কে এক বছরের জন্য এবং তার সহযোগী আনিকা তাবাসসুম মীম কে ছয় মাসের জন্য বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্টার রহিমা কানিজ।

তিনি জানান, বহিষ্কারাদেশ চলাকালিন সময়ে তারা কোনো ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে অবস্থান ও বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। সেই সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন সুবিধাসহ অন্যান্য সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে।

বহিষ্কৃত হওয়া ছাত্রী সুমাইয়া বিনতে ইকরাম ও আনিকা তাবাসসুম মীম বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের ৪৬ তম আবর্তনের শিক্ষার্থী । সুমাইয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রীতিলতা হল এবং আনিকা নওয়াব ফয়জুন্নেসা হলের আবাসিক ছাত্রী।

উল্লেখ্য, সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় সুমাইয়া বিনতে ইকরাম ও তার বান্ধবী আনিকা তাবাসসুম মীম, ভূক্তভোগী শিক্ষার্থী ও তার বন্ধুদের সাথে রাস্তায় সাইড দেয়াকে কেন্দ্র করে দূর্ব্যবহার করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, তাকে থামানোর চেষ্টা করা হলে তাদের সাথেও দূর্ব্যবহার করে সুমাইয়া।

ঘটনার এক পর্যায়ে রাত সাড়ে ৯টায় সুমাইয়ার ছেলেবন্ধু শিহাব খান দিগন্ত বিষয়টি মীমাংসা করতে আসলে সুমাইয়া ভূক্তভোগী শিক্ষার্থীকে থাপ্পড় মেরে বসে।

ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কয়েকটি হল থেকে শিক্ষার্থীরা সেখানে উপস্থিত হয়ে অভিযুক্ত সুমাইয়ার শাস্তির দাবী জানায়। রাত ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির কয়েকজন সদস্য সেখানে উপস্থিত হয়ে প্রাথমিক পরিস্থিতি সামাল দিয়ে প্রক্টর অফিসে নিয়ে যায়।

রাত ১১ টায় প্রক্টর অফিসে উভয় পক্ষই লিখিত বক্তব্য জমা দেয়। এসময় শিক্ষার্থীরা অভিযুক্ত সুমাইয়ার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানায়।

মঙ্গলবার বিকাল ৫ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃংখলা কমিটি সভায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ প্রমাণ থাকায় তাদের বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়। শৃংখলা কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের জরুরি সভায় অভিযুক্ত সুমাইয়া বিনতে ইকরাম কে এক বছরের জন্য এবং তার সহযোগী আনিকা তাবাসসুম মীম কে ছয় মাসের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়।

বিএনএ/শাকিল, এমএফ