30 C
আবহাওয়া
৫:১০ অপরাহ্ণ - ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » দিল্লির রাজপথে লাখো মুজিবের কণ্ঠ…

দিল্লির রাজপথে লাখো মুজিবের কণ্ঠ…


বিএনএ, ডেস্ক : ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে নয়া দিল্লির রাজপথে আয়োজিত দেশটির রাষ্ট্রীয় কুজকাওয়াজে অংশ নিয়েছে বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনী। গতকাল মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সাড়ে ৯টার দিকে হাজারো দর্শকের সামনে সশস্ত্র বাহিনীর মার্চিং ব্যান্ড জনপ্রিয় ‘শোন একটি মুজিবের থেকে লক্ষ মুজিবের কণ্ঠস্বরের ধ্বনি-প্রতিধ্বনি’ গানের সঙ্গে কুজকাওয়াজে অংশ নেয়। বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সমন্বয়ে সশস্ত্র বাহিনীর ১২২ সদস্যের সমন্বিত কন্টিনজেন্টের নেতৃত্ব দেন লে. কর্নেল আবু মো. শাহনুর শাওন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জš§শতবার্ষিকী ‘মুজিব বর্ষ’ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে অংশ নিতে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীকে আমন্ত্রণ জানায় ভারতের হাইকমিশন। কুচকাওয়াজে বাংলাদেশ ও ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর স্যালুট গ্রহণ করেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। সে সময় ভারতের ভাইস প্রেসিডেন্ট এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর মহামারীর কারণে এবার প্রজাতন্ত্রের দিবসের আয়োজন সীমিত করা হয়েছে। ১৫ বছরের কম বয়সী কোনো শিশুকে কুচকাওয়াজে অংশ নিতে দেয়া হয়নি।

চমকে ভরা ছিল প্রজাতন্ত্র-প্যারেড: নেই কোনো বিদেশি অতিথি। দর্শকাসনের সংখ্যা কমিয়ে দেয়া হয়েছে অনেক। বসার বন্দোবস্তও হয়েছে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে। করোনা মহামারীর জন্য এমন সব অভিনব ও নজিরবিহীন প্রজাতন্ত্রের প্যারেড দেখল দেশ ও বিশ্ববাসী। তার সঙ্গে সামরিক প্রদর্শনীর এমন অনেক কিছুই ছিল, যা প্রথম বার জনসমক্ষে এলো। রাফাল যুদ্ধবিমান এই প্রথম ‘স্কাই-ফ্লাই’-প্যারেডে অংশ নিল, তেমনই রাজপথে দেখা গেল টি-৯০ ট্যাঙ্ক। উড়ল সুখোই-৩০ এমকেআই যুদ্ধবিমানও। পশ্চিমবঙ্গের ‘সবুজ সাথী’র মডেল প্রজাতন্ত্রের প্যারেডে নজর কেড়েছে দিল্লিতে।

জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হওয়ার পর এই প্রথম লাদাখের ট্যাবলো অংশ নিল প্রজাতন্ত্রের প্যারেডে। প্রায় দু’দশক পর কোনো যুদ্ধবিমান যুক্ত হয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনায়। ফ্রান্স থেকে ৩৬টি রাফাল কিনেছে ভারত। তার মধ্যে আটটি হাতে পেয়েছে ইতোমধ্যেই হাতে পেয়েছে বায়ুসেনা।

সেই রাফাল প্রথম বার অংশ নিল প্রজাতন্ত্রের প্যারেডে। আকাশে চক্র প্রদর্শনী দেখিয়েছে এই যুদ্ধবিমান। যুদ্ধবিমান, হেলিকপ্টারসহ সব মিলিয়ে বায়ুসেনার ৩৮টি আকাশযান অংশ নেয় প্যারেডে। ছিল পদাতিক বাহিনীর ৪টি বিমানও। রাজপথের প্রদর্শনীতে ছিল লাইট কমব্যাট এয়ারক্রাফট ‘তেজস’, দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি অ্যান্টি ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইল ‘ধ্রæবাস্ত্র’, লাইট কমব্যাট হেলিকপ্টার, সুখোই-৩০ এমকেআই-এর মতো সামরিক অস্ত্রের মডেলও।

পদাতিক বাহিনীর ‘টি-৯০ ভীষ্ম’ ট্যাঙ্ক, ইনফ্যান্ট্রি কমব্যাট ভেহিক্যল ‘বিএমপি-২-শরথ’, ব্রহ্মস মিসাইল উৎক্ষেপণের ভ্রাম্যমাণ লঞ্চিং প্যাড, মাল্টিলঞ্চার রকেট সিস্টেম ‘পিনাকা’ এবং ইলেক্ট্রনিক ওয়ারফেয়ার সিস্টেম ‘সম্বিজয়’ও অংশ নিয়েছিল প্যারেডে। নৌবাহিনীর প্রদর্শনীতে ছিল যুদ্ধজাহাজ ‘আইএনএস বিক্রান্ত’-এর মডেল। ১৯৭১ সালের ভারত-পাক যুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা ছিল আইএনএস বিক্রান্তের। রাজপথে ছিল মোট ৩২টি ট্যাবলো। এর মধ্যে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ছিল ৬টি। অন্যান্য মন্ত্রণালয় ও আধাসেনার পক্ষ থেকে ছিল ৯টি ট্যাবলো। রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলো মিলিয়ে মোট ১৭টি রাজ্যের একটি করে ট্যাবলো অংশ নিয়েছিল প্রজাতন্ত্রের প্যারেডে।

গত বছর প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে পশ্চিমবঙ্গের কোনো ট্যাবলো স্থান পায়নি। তা নিয়ে বিতর্কও হয়েছিল। তবে এ বছর ছিল ‘সবুজ সাথী’র ট্যাবলো। সাইকেলে করে পড়ুয়াদের স্কুলে যাওয়ার দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা হয়েছিল মডেলের মাধ্যমে।

আইএসপিআর গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জš§শতবার্ষিকী মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভারতীয় হাইকমিশনের আমন্ত্রণে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর একটি সমন্বিত কন্টিনজেন্ট (মার্চিং ব্যান্ডসহ) ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস প্যারেডে অংশ নিয়েছে।

লে. কর্নেল আবু মো. শাহনুর শাওনের নেতৃত্বে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর চৌকস প্যারেড কন্টিনজেন্টটি সকাল ১০ টাকা ৩৭ মিনিটে রাজপথে আয়োজিত ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবস প্যারেডের সম্মানিত প্রধান অতিথিকে সালাম প্রদর্শন করে।

কুচকাওয়াজ সমাপনান্তে আগামী ৩০ জানুয়ারি সমন্বিত কন্টিনজেন্টটি বাংলাদেশে ফিরবে। ওই কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও ভারতের সশস্ত্র বাহিনীসহ সব রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নে ভ‚মিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়েছে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

Loading


শিরোনাম বিএনএ