Bnanews24.com
Home » ‘নটরডেম শিক্ষার্থীকে চাপা দেয়া ময়লার গাড়ি চালাচ্ছিলেন পরিচ্ছন্নতাকর্মী’
টপ নিউজ রাজধানী সব খবর

‘নটরডেম শিক্ষার্থীকে চাপা দেয়া ময়লার গাড়ি চালাচ্ছিলেন পরিচ্ছন্নতাকর্মী’

নটর ডেম কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান (১৭)

নটর ডেম কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান (১৭) কে চাপা দেয়া ময়লার গাড়ি চালাচ্ছিলেন পরিচ্ছন্নতাকর্মী, বলেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) মতিঝিল জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) আবদুল আহাদ।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর পল্টন থানায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

ডিসি আবদুল আহাদ জানান, ‘ডিএসসিসি ময়লাবাহী গাড়ির ধাক্কায় নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেফতার গাড়িচালক রাসেল খান আসলে একজন পরিচ্ছন্নতাকর্মী। তিনি গাড়িটির প্রকৃত চালক মো. হারুনের কাছ থেকে চাবি নিয়ে সায়েদাবাদ থেকে গাড়িটি নিয়ে বের হন।’ গ্রেফতার রাসেল সিটি করপোরেশনের কেউ না। এমন কি তার গাড়ি চালানোর লাইসেন্স নেই।

ডিসি বলেন, হারুনের নামে গাড়ি বরাদ্দ থাকলেও তিনি রাসেলকে বদলি হিসেবেগাড়ি চালাতে দিয়েছিলেন।

নাঈম হত্যার বিচারের দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো বৃহস্পতিবার রাজপথে অবস্থান নেয় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা। মতিঝিল মডেলের শিক্ষার্থীরাও আন্দোলনে একাত্মতা জানিয়েছে। বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা নগর ভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছে। সিটি করপোরেশনের নগর ভবনের সামনের রাস্তা বন্ধ করে তারা আন্দোলন করছে। গুলিস্তানের জিরোপয়েন্ট এবং শান্তিনগরে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের কারণে কিছু সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে দীর্ঘক্ষণ।

উল্লেখ্য,বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর গুলিস্তানের গোলচত্বরে হল মার্কেটের সামনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈমের মৃত্যু হয়।  নিহত নাঈমের বাবার নাম শাহ আলম দেওয়ান, মায়ের নাম জান্নাতুল ফেরদৌস। তাদের বাড়ি লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার পূর্ব কাজীরখিল দেওয়ানবাড়ী গ্রামে। নাঈম হাসানের অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে ডিএসসিসি। এই কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।