৮৫ চা শ্রমিক পরিবার পাচ্ছে নতুন ঘর

হবিগঞ্জ : সমাজকল্যাণ সচিব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেছেন, দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে চা শ্রমিকদের অবদান অনস্বীকার্য। সরকার চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করছে।

আরো পড়ুন

বারহাট্টায় দুর্নীতি প্রতিরোধ দিবস পালিত 

প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব পদে পরিবর্তন

রবিবার(২৫ সেপ্টেম্বর) হবিগঞ্জ জেলার তেলিয়াপাড়া, বৈকুণ্ঠপুর, নোয়াপাড়া ও জগদীশপুর চা বাগানে বাংলাদেশ জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ‘চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে টেকসই আবাসন নির্মাণ কর্মসূচি’ পরিদর্শনকালে সচিব এসব কথা বলেন।

চতুর্থ শিল্প বিপ্লব ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর পরিবর্তনশীল বিশ্বের চ্যালেঞ্জসমূহ সম্পর্কে চা শ্রমিকদের অবহিত করতে গিয়ে সচিব বলেন, নিকট ভবিষ্যতে হয়তো শ্রমিকদের স্থান দখল করবে যন্ত্র, তখন আপনারা কর্মহীন হয়ে পড়বেন। তাই আপনাদের সন্তানদের শিক্ষিত করে গড়ে তুলুন। তারা শিক্ষিত হয়ে চাকরিজীবী, উদ্যোক্তা হবে।

সচিব আরো বলেন, সরকার চা শ্রমিকদের বিষয়ে আন্তরিক। আপনাদের সন্তানদের লেখাপড়া করাতে গিয়ে যদি আর্থিক সংকটে পড়েন, স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিগণ সহযোগিতা করবে। আপনাদের সমাজের মূলস্রোতে আসতে হবে। আর পিছিয়ে থাকা চলবে না।

পরিদর্শনকালে বাংলাদেশ জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, হবিগঞ্জ সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক রাশেদুজ্জামান চৌধুরী ও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে টেকসই আবাসন নির্মাণ কর্মসূচির আওতায় হবিগঞ্জ জেলায় ৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৮৫ চা শ্রমিক পরিবারকে ঘর নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।

বিএনএনিউজ২৪,জিএন