Bnanews24.com
জাতীয় টপ নিউজ প্রতিরক্ষা

সেনাবাহিনীর সার্বিক উন্নয়ননে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বিএনএ,চট্টগ্রাম:২০৪১ সালের উন্নত দেশ গড়ার কারিগর হিসেবে কাজ করতে সেনাবাহিনীর নবীন সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।ফোর্সেস গোল বাস্তবায়নসহ সেনাবাহিনীর উন্নয়নে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করছে বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার(২৪ ডিসেম্বর)চট্টগ্রামে মিলিটারী একাডেমিতে ৭৯তম বিএমএ কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন,শপথ গ্রহণের মধ্য দিয়ে সেনা সদস্যরা দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় দায়িত্ব কাঁধে নিলেন।বিশ্বে যেন দেশের ভাবমূর্তি উজ্জল হয় সে লক্ষ্যে কাজ করে যেতে হবে।দেশের উন্নয়ন হলে সবার উন্নতি হবে।আর দেশে শান্তি থাকলে প্রতিটি মানুষই শান্তিতে থাকবে।তাই মানুষের জীবনমান উন্নয়নে সেনাবাহিনীর নবীন কর্মকর্তাদের আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে হবে।

সরকার প্রধান বলেন,আওয়ামী লীগ সরকার সেনাবাহিনীতে নারী সদস্যদের নিয়োগ দিয়েছে যা যুগান্তকারী পদক্ষেপ।১৯৭৪ সালে জাতির পিতার করে যাওয়া প্রতিরক্ষা নীতি অনুসরণ করে সরকার ফোর্সেস গোল বস্তাবায়নসহ সেনাবাহিনীর সার্বিক উন্নয়নে কাজ করছে।বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শান্তি রক্ষায় সেনাবাহিনীর বর্তমান সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে নবীন কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।এছাড়া, দেশকে আরও এগিয়ে নিতে নবীন সেনাসদস্যদের আহ্বানের পাশাপাশি তাদের অভিভাবকদেরও শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী।

বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমী’র ৭৯ তম দীর্ঘ মেয়াদি কোর্সের অফিসার ক্যাডেটদের কমিশন প্রাপ্তি উপলক্ষ্যে চট্টগ্রামের ভাটিয়ারিতে অনুষ্ঠিত হয় রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ ২০২০।গনভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এই অনুষ্ঠানে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।এর মাধ্যমে ১১৬ জন বাংলাদেশী, ৩ জন ফিলিস্তিনি ও ১ জন শ্রীলংকান ক্যাডেটসহ মোট ১২০ জন ক্যাডেট কমিশন লাভ করেন।প্রশিক্ষনে সব ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারী সিনিয়র আন্ডার অফিসার ব্যাটেলিয়ান মাহমুদুল হাসানকে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে সোর্ড অব অনার তুলে দেন সেনা প্রধান।

বিএনএনিউজি/ওজি,আরকেসি