28 C
আবহাওয়া
১:২৬ পূর্বাহ্ণ - জুলাই ২৩, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » প্রযোজকের বিরুদ্ধে শিল্পী সমিতিতে মাহির অভিযোগ

প্রযোজকের বিরুদ্ধে শিল্পী সমিতিতে মাহির অভিযোগ

মাহিয়া মাহি

বিনোদন ডেস্ক: প্রযোজক সমিতির নেতাদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের পরে এবার প্রযোজকের বিরুদ্ধে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মিথ্যা অভিযোগ ও মানহানিকর মন্তব্য করার অভিযোগে সরকারি অনুদানে নির্মিত ‘আশীর্বাদ’ ছবির প্রযোজক তাহেরা ফেরদৌস জেনিফারের বিরুদ্ধে মাহি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন গতকাল ২৩ আগস্ট (মঙ্গলবার) বিকেলে তার পক্ষ থেকে এই অভিযোগপত্রটি দায়ের করা হয়। এতে মাহি তার বিরুদ্ধে করা মিথ্যে অভিযোগ ও মানহানিকর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানান।

মাহির করা অভিযোগ প্রাপ্তি স্বীকার করেছেন শিল্পী সমিতির সহসাধারণ সম্পাদক সাইমন সাদিক। তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, আমরা অভিযোগপত্রটি পেয়েছি। এরআগেও মৌখিকভাবে মাহি অভিযোগ জানিয়েছিলেন। শিগগিরই এটা নিয়ে আমরা সমিতিতে বসবো।

অভিযোগপত্রে লিখেছেন, আমি ২০১২ সাল থেকে সম্মানের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছি। সম্প্রতি ‘আশীর্বাদ’ সিনেমার প্রযোজক জনাব তাহেরা ফেরদৌস জেনিফার আমার বিরুদ্ধে নানা ধরনের মিথ্যা অভিযোগ এনে বাজে মন্তব্য করে যাচ্ছেন। যে সব মন্তব্য ইতিমধ্যেই ইউটিউবসহ সোশ্যাল মিডিয়া ও গণমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সেই সঙ্গে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করার হুমকিও দিচ্ছে তারা। প্রযোজক জেনিফারের এই সব উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বক্তব্য ও জিঘাংসামূলক কর্মকাণ্ডে আমি বিব্রত। এতে আমার মানহানি হচ্ছে। শুধু তাই নয়, তার এই সব বক্তব্যে জনমনে শিল্পীদের সম্পর্কে নেতিবাচক মনোভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। এটা সকল চলচ্চিত্র শিল্পীদের ইমেজকেই ক্ষুণ্ন করছে। আমাকে হেয় করাসহ জেনিফার ফেরদৌসের এইসব বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

জানা যায়, সবশেষে মাহি প্রযোজক জেনিফার ফেরদৌসের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন জানান। সেই সঙ্গে নিজের সম্মানহানির বিচার করে শিল্পীদের ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ন রাখার অনুরোধও জানান মাহিয়া মাহি।

এদিকে জানা গেছে, প্রকাশ্যে ইউটিউবারদের সহায়তায় অপ্রকাশযোগ্য ভাষায় মাহি ও চিত্রনায়ক রোশানকে অপদস্থ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সেন্সরবোর্ডের সদস্য ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাস। তিনি বলেন, এটা খুবই বাজে বিষয়। ঘটনা যাই ঘটুক এটা নিজেদের মধ্যে বসে সমাধান করা যেতো। কিন্তু প্রকাশ্যে একজন প্রযোজক এভাবে শিল্পীদের ব্যক্তিজীবন নিয়ে অপ্রীতিকর কথা বলতে পারেন না। এই অসম্মান সকল শিল্পীদের। মানুষ প্রযোজক নয়, শিল্পী দেখেই রিয়েক্ট করেন, তাকে সম্মান না জানালে দর্শক কেন সম্মান করবে ?

অন্যদিকে দেশের প্রতিষ্ঠিত একজন চিত্রনায়িকাকে নিয়ে একজন মৌসুমী প্রযোজকের এমন অরুচিকর কথাবার্তা বলার ঘটনায় প্রযোজক সমিতির ভুমিকা কে দুষছেন কেউ কেউ। একাধিক প্রযোজক বলেন, এটা এমন কোনো বড় বিষয় নয় যে, সমাধান করা যাবে না। কিন্তু সম্মানের চেয়ে প্রযোজকরা ভোটের রাজনীতিকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন বলেই এই সমস্যার সমাধান হচ্ছে না।

বিএনএনিউজ২৪ /রিপন রহমান খাঁন/ এমএইচ

Loading


শিরোনাম বিএনএ