যেসব তারকাদের মিস করবে কাতার বিশ্বকাপ

স্পোর্টস ডেস্ক: এবারের বিশ্বকাপে তো তারার অভাব নেই। লিওনেল মেসি, ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর মতো মহাতারকা খেলবেন এবারও। থাকবেন নেইমার, কিলিয়ান এমবাপে, হ্যারি কেইনরা। তারপরও আছেন কয়েকজন, যাদের অনুপস্থিতিতে কাতার আসরের দ্যুতি একটু হলেও রঙ হারাবে।

আরো পড়ুন

দিন ও রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে

রুশ হামলায় ১৩ হাজার ইউক্রেনীয় সেনা নিহত

যে কাজে আল্লাহর রহমত উঠে যায়

আলফ্রেদো দি স্তেফানো, জর্জ বেস্ট, জর্জ উইয়াহ, এরিক কাঁতোয়া, লাজলো কুবালার মতো ফুটবল গ্রেটরা খেলতে পারেননি বিশ্বকাপে। ২২ বছর বয়সী হলান্ডের সামনে এখনও ঢের সময় আছে বিশ্ব মঞ্চের অভিজ্ঞতা নেওয়ার।

ক্যারিয়ারে এই তরুণের বিপরীত অবস্থানে থাকা জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচকে দেখা যাবে না এবারের আসরে। মোহামেদ সালাহ, রিয়াদ মাহরেজ, লুইস দিয়াস, ভিক্টর ওসিমহেন, জানলুইজি দোন্নারুম্মাদেরও পা পড়বে না কাতারের মঞ্চে।

জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ
“আমাকে ছাড়া বিশ্বকাপে দেখার মতো কিছু নেই। তাই বিশ্বকাপের জন্য অপেক্ষা অর্থহীন”, ৯ বছর আগে বলেছিলেন ইব্রাহিমোভিচ। ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপে সুইডেন উঠতে ব্যর্থ হওয়ার পর এই মন্তব্য করেছিলেন তিনি। সেবার ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর হ্যাটট্রিকসহ চার গোলে দুই লেগে প্লে-অফে পর্তুগালের বিপক্ষে হেরে ছিটকে গিয়েছিল সুইডেন।

আর্লিং হলান্ড
ইংল্যান্ডে জন্ম নেওয়া নরওয়ের এই স্ট্রাইকার ম্যানচেস্টার সিটিতে প্রতিনিয়ত যেন স্পর্শ করছেন নতুন উচ্চতা। প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটির হয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ১৩ ম্যাচে করেছেন ১৮ গোল।

এর মধ্যে রয়েছে তিন হ্যাটট্রিক। যার সৌজন্যে ভেঙেছেন এক গাদা রেকর্ড। আভাস দিয়েছেন আরও অনেক রেকর্ড নিজের করে নেওয়ার। প্রথম ফুটবলার হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মাত্র ২০ ম্যাচে করেছেন ২৫ গোল।

নরওয়ের হয়েও তার পারফরম্যান্স অসাধারণ; এখন পর্যন্ত ২১ ম্যাচে করেছেন ২৩ গোল।

মোহামেদ সালাহ
বাছাই পর্ব অদ্ভূত এক পরিস্থিতির সামনে ফেলেছিল। হয় সাদিও মানে নয়তো মোহাম্মদ সালাহ যাবেন বিশ্বকাপে। প্লে-অফে যে মুখোমুখি হয়েছিল দুই তারকার দল। সেনেগালের বিপক্ষে টাইব্রেকারে হেরে বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন ভাঙে মিশরের। তার কিছু দিন আগে একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে একইভাবে আফ্রিকান নেশন্স কাপের ফাইনালে হেরেছিল সালাহর দল।

লুইস দিয়াস
লাতিন আমেরিকার প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বাছাই পেরিয়ে কাতার যেতে পারেনি কলম্বিয়া। এর অর্থ রামাদেল ফালকাও, হামেস রদ্রিগেস, হুয়ান কুয়াদরাদো এবং তারকা হয়ে ওঠার পথে থাকা দিয়াসকে দেখা যাবে না বিশ্বকাপে। পোর্তো থেকে লিভারপুলে যাওয়ার পর থেকে আলো ছড়াচ্ছেন দিয়াস। গতিময় এই ফুটবলার ভীতি ছড়াতে পারেন যে কোনো রক্ষণে। গোল করতে পারেন, করাতে পারেন। আকর্ষণ জাগানোর সকল সামর্থ্যই আছে তার।

ভিক্টর ওসিমহেন
নাপোলির হয়ে কী দুর্দান্ত সময়ই না কাটছে ওসিমহেনের। নাইজেরিয়ার হয়েও মেলে ধরছেন নিজেকে। বাছাইয়ের গ্রুপ পর্বে করেছেন চার গোল। কিন্তু সব গড়বড় হয়ে যায় ঘানার বিপক্ষে লড়াইয়ে। প্রতিপক্ষের মাঠে গোলশূন্য ড্রয়ের পর দেশের মাটিতে ১-১ গোলে ড্র করে নাইজেরিয়া। প্রতিপক্ষের মাঠে গোলের সুবাদে এগিয়ে যায় ঘানা। এই ব্যর্থতায় বড় ধাক্কা খান ওসিমেন। দুঃখ প্রকাশ করেন ভক্তদের কাছে।

রিয়াদ মাহরেজ
আলজেরিয়ার রিয়াদ মাহরেজের জাদুকরী ফুটবলও দেখা যাবে না কাতারে। লেস্টার সিটিতে আলো ছড়িয়ে এখন দারুণ সময় কাটাচ্ছেন ম্যানচেস্টার সিটিতে। আলজেরিয়ার জন্যও তিনি খুব গুরুত্বপূর্ণ। বাছাই পর্বে পাঁচ গোল করে ‘এ’ গ্রুপে দলের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনে রাখেন বড় ভূমিকা। এরপর প্লে-অফে প্রথম রাউন্ডে ক্যামেরুনের বিপক্ষে ১-০ গোলে জিতে বিশ্বকাপে এক পা দিয়েই রেখেছিল আলজেরিয়া। কিন্তু ঘরের মাঠে পরের ম্যাচে ২-১ গোলে হেরে যায় তারা। প্রতিপক্ষের মাঠে বেশি গোলের সৌজন্যে কাতারে জায়গা করে নেয় ক্যামেরুন।

জানলুইজি দোন্নারুম্মা
ওয়েম্বলিতে কিছু দিন আগেও দোন্নারুম্মা ছিলেন নায়ক। ইউরো ২০২০ এর ফাইনালে গড়ে দিয়েছিলেন ব্যবধান। টাইব্রেকারে তার নৈপুণ্য ইংল্যান্ডকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল ইতালি। কিন্তু গ্লাভস থেকে ফস্কে গেছে বিশ্বকাপের মূল পর্ব। সুইজারল্যান্ডের পেছনে থেকে বাছাইয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হয় ইতালি। প্লে-অফ সেমি-ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ নর্থ মেসিডোনিয়া। এই দলটি গোটা বিশ্বকে চমকে দিয়ে বাছাইয়েই শেষ করে দেয় ইতালির বিশ্বকাপ।

বিএনএনিউজ২৪/ এমএইচ