চিত্রনায়িকা তমা

চিত্রনায়িকা তমা ও তাঁর স্বামীর পাল্টাপাল্টি মামলা

বিনোদন

বিএনএ ডেস্ক : রাজধানীর বাড্ডা থানায় গত ৬ ডিসেম্বর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী তমা মির্জার বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার মামলা করেছেন তার স্বামী হিশাম চিশতি। ৩২৩/৩২৪/৩২৫/৩০৭/১০৯ ধারায় দায়ের করা মামলায় তমাকে এক নম্বর আসামি করা হয়েছে। এছাড়া তার বাবা, মা, ভাই এবং অজ্ঞাতপরিচয়ের একজনকেও আসামি করা হয়েছে।
এদিকে চিত্রনায়িকা তমা মির্জাও তার স্বামীর বিরুদ্ধে একই থানায় ৫ ডিসেম্বর একটি মামলা করেছেন। মামলায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন এবং যৌতুক জন্য মারপিটসহ হুমকি প্রদানের অভিযোগ আনা হয়েছে।
হিশাম চিশতির দায়ের করা মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, মির্জা ফারজানা ইয়াসমিন তমা (তমা মির্জা) ও হিশাম চিশতির মধ্যে প্রায় দেড় বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর বিভিন্ন সময়ে বাবা-মায়ের প্ররোচনায় হিশামের কাছ থেকে মোট ২০ লাখ টাকা ধার হিসেবে নেন তমা। সেই টাকা ফেরত চাইলে কালক্ষেপণ শুরু করেন। এ পরিস্থিতিতে গত ২৯ সেপ্টেম্বর হিশাম কানাডা থেকে দেশে এসে তমাকে তার নিজের বাসায় এসে থাকতে বলেন। কিন্তু তিনি নানা অজুহাতে তার বাসায় না গিয়ে বাবার বাসাতেই থাকেন। এরপর হিশাম শ্বশুর বাড়িতে গেলে তার সঙ্গে তমাসহ বাড়ির সবাই খারাপ আচরণ শুরু করেন। এক পর্যায়ে গত ৫ ডিসেম্বর রাত ৩টার দিকে তমা মির্জার বাবার বাড্ডার বাসায় যেতে বলা হয় হিশামকে। সেখানে নানা বিষয়ে আলোচনার পর ধার নেওয়া ২০ লাখ টাকা চাইলে বাসার সদস্যদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় তার। একপর্যায়ে বাড়ির সদস্যরা ক্ষিপ্ত হয়ে হিশামের ওপর আক্রমণ করে। ওড়না দিয়ে পেঁচিয়ে তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়। এছাড়া লোহার চেয়ার দিয়ে আঘাত করলে ডান হাতে গুরুতর আঘাত পেয়ে মেঝেতে পড়ে যান হিশাম। তিনি চিৎকার শুরু করলে বাসার নিচের দারোয়ান ও আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে যায়।
তমার দায়ের করা মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, , বিয়ের পর থেকে তার স্বামী হিশাম চিশতী বিভিন্ন সময় যৌতুকের জন্য মারধর করতেন। এ ছাড়া অকারণে গায়ে হাত তুলতেন। এমনকি ফেসবুকে পরিচয় গোপন করে মানহানিকর কথাবার্তা বলতেন। এ ছাড়া হিশাম এই নায়িকার বাবা-মাকে ভয়ভীতি দেখান এবং হত্যার হুমকি দেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তাদের ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি প্রকাশের ভয়ভীতি দেখান।
এ বিষয়ে তমা মির্জা গণমাধ্যমকে মামলার বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, মামলার বিষয়ে তো কিছু হয়নি। আমাদের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে, এটা ঠিক। সেটা সুরাহার জন্য উভয়ে থানায় অভিযোগ করেছি। বিষয়টি একান্তই আমাদের পারিবারিক বিষয়।
হিশাম চিশতি গণমাধ্যমকে জানান, ৫ ডিসেম্বর রাতে তাকে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের আঘাতে আহত হয়ে ঢাকার একটি সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হয়। এ কারণে মামলা করতে তার কিছুটা দেরি হয়। হাসপাতালের চিকিৎসার ব্যবস্থাপত্র তার কাছে আছে।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও বাড্ডা থানার এসআই মাহমুদুল হাসান জানান, মামলা একটি নয়। এই বিষয়ে দুটি মামলা হয়েছে। চিত্রনায়িকা তমাও তার স্বামীর নামে বাড্ডা থানায় একটি মামলা করেছেন। বিপরীতে স্বামীও তমার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

বিএনএ/ওজি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *