Bnanews24.com
Home » মিরপুরে বিএনপি’র সমাবেশ পণ্ড
জনদুর্ভোগ টপ নিউজ বাংলাদেশ বিএনপি রাজনীতি সব খবর

মিরপুরে বিএনপি’র সমাবেশ পণ্ড

মিরপুরে বিএনপি'র সমাবেশ পণ্ড

বিএনএ ডেস্ক: কয়েক দফা সমাবেশের স্থান পরিবর্তন হলেও শেষ পর্যন্ত সমাবেশ করতে পারেনি ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি। আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও পুলিশের হামলায় সমাবেশ পণ্ড হয়ে যাওয়ার অভিযোগ করেন বিএনপি নেতারা।

জ্বালানি তেল ও দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি এবং নেতা-কর্মীদের হত্যা করার প্রতিবাদে ঢাকার ১৬টি জায়গায় সমাবেশ কর্মসূচি ঘোষণা করেছিল বিএনপি। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) পল্লবী জোনে সমাবেশের অনুমতি নেয় ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়নক আমান উল্লাহ আমান জানান, যেসব জায়গায় পুলিশ সমাবেশের অনুমতি দিয়েছিলো প্রতিটি স্থানে আওয়ামী লীগ কর্মসূচি নিয়ে হাজির হয়। সবশেষ পল্লবীর মুকুল ফৌজি মাঠে সমাবেশ করার অনুমতি দেয় পুলিশ। সেখানে মঞ্চ তৈরি করতে গেলে আওয়ামী লীগ, যুবলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেন তিনি।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা বলেন, ওই স্থানে সদ্য প্রয়াত সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর স্মরণসভা করতে চেয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু স্মরণসভা করার মতো পরিস্থিতি না থাকায় ওই স্থান থেকে চলে যাওয়ার আগে তাঁরা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর জন্য দোয়া করেছেন।

মিপুরের সড়কে পুলিশের অবস্থান
মিপুরের সড়কে পুলিশের অবস্থান

পুলিশ জানায়, সংঘর্ষের সময় দফায় দফায় দুই পক্ষ পাল্টাপাল্টি ধাওয়া এবং ইটপাটকেল ছোড়ে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়। এ ঘটনায় বিএনপির শতাধিক নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্যসচিব আমিনুল হক।

আমিনুল হক বলেন, ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীরা তাঁদের ওপর অকারণে হামলা চালান। পরে তাদের ধাওয়া দিলে পুলিশ ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে যুক্ত হয়ে বিএনপির নেতা-কর্মীদের কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে এলাকা ছাড়া করে। পুলিশের হামলার বিষয়ে অভিযোগ জানাতে বিএনপির কয়েকজন পুলিশের মিরপুর জোনের উপকমিশনার জসিমউদ্দিন মোল্লার সঙ্গে কথা বলতে যান। এ সময় পুলিশ নিশ্চুপ ছিল।

বিএনপি নেতারা বলেন, তাদের সমাবেশে বাধা দেয়ার জন্য আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা লাঠিসোঁটা হাতে সমাবেশস্থল ও আশপাশ এলাকায় মহড়া দিতে থাকে। বেলা তিনটার দিকে বিএনপির সমাবেশস্থলের জায়গা দখলে নেন ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীরা। দুই ঘণ্টার বেশি সময় অবস্থানের পর বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে চলে যান আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। যাওয়ার আগে তাঁরা দোয়া করেন।

বিএনএ/এ আর