Bnanews24.com
Home » শেষ হলো নারায়ণগঞ্জ সিটির প্রচারণা, রোববার ভোট
কভার জাতীয় সব খবর

শেষ হলো নারায়ণগঞ্জ সিটির প্রচারণা, রোববার ভোট

শেষ হলো নারায়ণগঞ্জ সিটির প্রচারণা, রোববার ভোট

বিএনএ নারায়নগঞ্জ: শুক্রবার (১৪ই জানুয়ারি) মধ্যরাতে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা শেষ হয়েছে। শেষ মুহূর্তে ভোটারদের মন জয় করতে ঘাম ঝড়িয়েছেন প্রার্থীরা। শহরের অলি-গলি চষে বেড়িয়েছেন তারা। মেয়র প্রার্থীদের পাশাপাশি প্রচারণা ও গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করেছেন সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

শেষ মুহূর্তে ভোট চাইতে গিয়ে মেয়র প্রার্থীদের পাশাপাশি কাউন্সিলর প্রার্থীরাও নগর উন্নয়নের নানা আশ্বাস দিয়েছেন। তবে প্রতিশ্রুতি যাই হোক, সব সময় যাকে পাশে পাবেন আর নগরের উন্নয়ন করবেন এমন সৎ যোগ্য প্রার্থীকেই ভোট দিতে চান ভোটাররা। পাশাপাশি ভোটের দিনে সুষ্ঠু পরিবেশেরও দাবি করেছেন তারা।

এদিকে, ভোট গ্রহণের দিন কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার, কেন্দ্র দখলসহ সহিংসতার আশংকা করছেন অনেক কাউন্সিলর প্রার্থী।

জয়ের জন্য শেষ মুহূর্তে নিজেদের মতো করে কৌশল নিয়ে এগোচ্ছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার।  নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু থাকলে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী।

শুক্রবার শহরের দেওভোগ এলাকার বাসভবনে ব্রিফিং-এ সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, তাকে পরাজিত করতে অনেক পক্ষ এক হয়ে গেছে। যারা সহিংসতা করে তারা একসময় এক হয়ে যায়। এখানে আপন আর পর কী। নির্বাচনটা হচ্ছে আইভী বনাম অনেকে।

তিনি বলেন, কেন্দ্র কী করছে, তা শুধু কেন্দ্রই বলতে পারবে।  প্রতিটা নির্বাচনই চ্যালেঞ্জিং ছিল। এই নির্বাচনও চ্যালেঞ্জবিহীন নয়। কেন্দ্রের লোকজন কাউকে প্রভাবিত করছে না। তারা হয়তো অন্য কোনো কারণে এখানে পর্যবেক্ষণে আছেন। যাতে এখানে কোনো বিশৃঙ্খলা না হয়। ভোটের মাঠে তারা কখনো নেগেটিভ কিছু বলেননি বলেও জানান আইভী।

অন্যদিকে, স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার নির্বাচনী প্রচারণার শেষ দিনে বলেন, পুলিশের কার্যক্রমের কারণে একটা ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। তবে জনগণ ভীত না। সবাই ঐক্যবদ্ধ আছেন।

তিনি অভিযোগ করেন, নির্ধারিত ভোটকেন্দ্রগুলো থেকে সিসি ক্যামেরা সরিয়ে ফেলা হচ্ছে। নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে এবং ভোটের দিন অপ্রীতিকর ঘটনার নীল নকশার অংশ হিসেবেই কেন্দ্রগুলো থেকে সিসি ক্যামেরা সরানো হচ্ছে।

এর আগে মিশনাপাড়ায় সংবাদ সম্মেলনে তৈমুর আলম বলেন, সরকারি দলের বহিরাগতদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি ঘোলাটে হচ্ছে। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

উল্লেখ্য, রোববার (১৬ জানুয়ারি) সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণ করা হবে। মেয়র পদে তৈমূর আলম ও আইভি হায়াৎ ছাড়াও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আরও ৫ জন। সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে রয়েছেন ৩২ জন।

প্রায় ২০ লাখ মানুষের এই সিটিতে ভোটার ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৭ জন। এরমধ্যে নারী ভোটার-২ লাখ ৫৭ হাজার ৫১৯ আর পুরুষ ভোটার-২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৩৪ জন। এই সিটির সবগুলো কেন্দ্রে ভোট হবে ইভিএমে।

বিএনএনিউজ/আরকেসি