Bnanews24.com
Home » প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছে চাঁদা দাবি,আটক-১
অপরাধ এক নজরে বৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃহত্তর চট্টগ্রাম সব খবর

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছে চাঁদা দাবি,আটক-১

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছে চাঁদা দাবি,আটক-১

বিএনএ ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছে  চাঁদা দাবির অভিযোগে আলী আযম নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। আটক আলী আযম উপজেলার তারুয়া গ্রামের মৃত হোমিও ডাক্তার  গোলাম মোস্তফার ছেলে এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক সত্যের দিগন্ত পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক। সে সময় আশিকুর রহমান রনি নামে তার এক সহযোগী দৌড়ে পালিয়ে যায়।

শরীফপুর পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হাবিবুর রহমান বলেন, সকালে স্কুলে শিক্ষকরা যে যার ক্লাশে পাঠদান নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। সে সময় আলী আযম ও আশিকুর রহমান রনি নিজেদেরকে সাংবাদিক এবং আশুগঞ্জ প্রেসক্লাবের যথাক্রমে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পরিচয় দেন। পরে তারা স্কুলের হাজিরা খাতা ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ গোপন নথি দেখতে চান। শিক্ষকরা তা দেখাতে না চাইলে আলী আযম এবং আশিকুর রহমান রনি শিক্ষকদের উপর ক্ষিপ্ত হন।

এক পর্যায়ে শিক্ষকদের গালাগাল শুরু করে তারা। পরে শিক্ষকদের অনিয়ম নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করার হুমকি দেন এ দুই জন। পরে শিক্ষকরা তাদের অপরাধ কি জানতে চাইলে কথা না বাড়িয়ে বিষয়টি সমাধান করার কথা বলেন তারা। কিভাবে সমাধান করতে হবে জানতে চাইলে শিক্ষকদের কাছে ২০ হাজার টাকা দাবি করেন আলী আযম ও আশিকুর রহমান রনি। শিক্ষকরা কেন টাকা দেবেন এই কথা বলার পর দুইজনেই উত্তেজিত হয়ে তাদের আবারও গালাগাল শুরু করেন। শোরগোল শুনে এলাকাবাসী এগিয়ে আসেন। পরে অবস্থা খারাপ দেখে আশিকুর রহমান রনি দৌড়ে পালিয়ে যায়। আর এলাকাবাসী আলী আযমকে আটক করে পুলিশের কাছে তুলে দেয়।

এই ঘটনায় স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি লাল মিয়া বকসী জানান, আলী আযম ও আশিকুর রহমান রনির বিরুদ্ধে আশুগঞ্জ থানায় চাঁদাবাজি ও সরকারি কাজে বাধা দেয়ার মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আশুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আজাদ রহমান বলেন, আলী আযমকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। বাদির লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

বিএনএনিউজ/গোলাম সরোয়ার,আরকেসি