28 C
আবহাওয়া
৯:৩৭ পূর্বাহ্ণ - মে ২৬, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » রাজধানীতে ফুলের দাম বৃদ্ধির কারণ জানতে চাওয়ায় তিন সাংবাদিককে মারধর

রাজধানীতে ফুলের দাম বৃদ্ধির কারণ জানতে চাওয়ায় তিন সাংবাদিককে মারধর

রাজধানীতে ফুলের দাম বৃদ্ধির কারণ জানতে চাওয়ায় তিন সাংবাদিককে মারধর

বিএনএ, ঢাকা: ফুলের দাম বৃদ্ধির কারণ জানতে চাওয়ায় রাজধানীর শাহবাগে ৩ সাংবাদিককে রাস্তায় ফেলে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে একজন চোখে আঘাত পেয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে শাহবাগ ফুলতলা ফ্লাওয়ার শপে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার সাংবাদিকরা হলেন- নিউজবাংলা টোয়েন্টিফোর ডটকমের মনিরুল ইসলাম, রেডিও টুডের মো. ইমদাদুল আজাদ এবং বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের রাসেল সরকার। তারা সবাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় মামলা দায়ের করেন। এতে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৬-৭ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

অভিযুক্তরা হলেন- পায়েল (৩৫), সাল্লু (২৭), আব্দুর রাজ্জাক (৩৫), বুলু (৩২), দিদার (৩১), বাবু (৩০) ও জাহাঙ্গীর (৩২)। তারা সবাই শাহবাগ ফুল মার্কেটের কর্মচারী।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাজিরুর রহমান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

প্রত্যক্ষদর্শী পাশ্ববর্তী মাহমুদা পুষ্পালয়ের বিক্রয়কর্মী তাজুল ইসলাম বলেন, প্রথমে কী হয়েছে জানি না। হঠাৎ দেখি পায়েল, সাল্লু, আব্দুর রাজ্জাক, বুলু, বাবু একজনকে দোকান থেকে মারতে বাইরে নিয়ে আসে। পরে তার সঙ্গে থাকা আরও দুজনকে তারা মারধর করে।

মামলার এজাহারে মনিরুল ইসলাম উল্লেখ করেছেন, তিনি তার সহকর্মী রাসেল সরকারসহ শাহবাগ ফুল মার্কেটে ফুলের দাম বাড়ার কারণ সংক্রান্ত সংবাদ সংগ্রহে যান। তারা ফুলতলা ফ্লাওয়ার শপে কর্মরত পায়েলকে ফুলের দাম বাড়ার কারণ জিজ্ঞেস করলে সে খারাপ আচরণ করে এবং তাদের ভুয়া সাংবাদিক বলে আখ্যায়িত করে। এ ঘটনার মৌখিক প্রতিবাদ করায় সে উত্তেজিত হয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি ও চড়-থাপ্পর মারতে শুরু করে। পরে বর্ণিত বিবাদীসহ অজ্ঞাত আরও ৬-৭ জন তাদের দুজনকে মারধর করে।

তিনি আরও উল্লেখ করেন, খবর পেরে ইমদাদুল আজাদ ঘটনাস্থলে গেলে বিবাদীরা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকেও মারধর করে। এতে ইমদাদ চোখে মারাত্মক আঘাত পান। এর মধ্যে আশেপাশে থাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু শিক্ষার্থী তাদের চিনতে পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাহবাগ ফুলতলা ফ্লাওয়ার শপের মালিক ও ঢাকা ফুল ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. মেরিন শেখ বলেন, আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না। ঢাকার বাইরে অবস্থান করছি। দোকানো ঝামেলা হয়েছে বলে শুনেছি।

বিএনএনিউজ/ বিএম/এইচমুন্নী

Loading


শিরোনাম বিএনএ