18 C
আবহাওয়া
১০:৩৫ পূর্বাহ্ণ - মার্চ ২, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » ১৩ লক্ষ ডিজেল পাম্প সোলার পাম্পে রূপান্তরিত হবে

১৩ লক্ষ ডিজেল পাম্প সোলার পাম্পে রূপান্তরিত হবে

প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সাথে সচিবালয়ে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) এর দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক মহাপরিচালক তাকেও কনিশি (Takeo Konishi) সাক্ষাৎ

ঢাকা : বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, ভবিষ্যতে আমাদের প্রায় ৯ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির পরিকল্পনা রয়েছে। জ্বালানির প্রকৃত মূল্য নির্ধারণ করার জন্য একজন ভালো পরামর্শক প্রয়োজন। এডিবি এ বিষয়ে সহযোগিতা করতে পারে।

সোমবার(১২ ফেব্রুয়ারি)  প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সাথে সচিবালয়ে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) এর দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক মহাপরিচালক তাকেও কনিশি (Takeo Konishi) সাক্ষাৎ করেন। এ সময় প্রতিমন্ত্রী উপরোক্ত কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী এডিবি’র মহাপরিচালককে স্বাগত জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের এডিবি সাহায্যপুষ্ট প্রকল্পের সংখ্যা আরো বাড়ানো উচিত। পাওয়ার মার্কেট তৈরি করতে এডিবি সাহায্য করতে পারে। যার মাধ্যমে প্রয়োজনমতো বিদ্যুৎ ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে। শীতকালে নেপাল বা ভুটানে বিদ্যুৎ রপ্তানি করা যেতে পারে।

প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, আমাদের সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহারের জন্য সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। জ্বালানি খাতে সরকারের ভর্তুকি কমাতে বন্ড ইস্যু করা হচ্ছে। ১৩ লক্ষ ডিজেল পাম্প সোলার পাম্পে রূপান্তরিত করার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, প্রযুক্তির প্রসার ও কমন ডাটা সেন্টার নির্মাণে এডিবির সাথে একযোগে কাজ করতে পারলে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

আলোচনাকালে এডিবি’র মহাপরিচালক এনার্জি ট্রাঞ্জিশনে বেসরকারি সংস্থার অংশগ্রহণ বাড়ানো, ইলেকট্রিক ভেহিক্যাল, জ্বালানি দক্ষতা ও সোলার ইরিগেশন রোডম্যাপ বাস্তবায়নে অর্থায়ন, আঞ্চলিক আন্তঃসংযোগ ও প্রকল্পের প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা করেন।

উল্লেখ্য, বিদ্যুৎ খাতে ৭টি প্রকল্পে ২.৫৭ বিলিয়ন ডলার এডিবি’র অর্থায়ন রয়েছে। ২০২৩ সালে ৩৬০ মিলিয়ন ডলার মূল্যমানের ২টি প্রকল্প অনুমোদন করা হয়েছে। জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগে এডিবি’র অর্থায়নে ৩টি প্রকল্প চলমান এবং ৫টি প্রকল্প প্রস্তাবিত আকারে রয়েছে।

আরও পড়ুন : বৈদ্যুতিক গাড়ি আমদানি ফ্রি করে দিল মিয়ানমার

এ সময় অন্যান্যের মাঝে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর ইডিমন গিনটিং (Edimon Ginting) উপস্থিত ছিলেন।

বিএনএ,এসজিএন

Loading


শিরোনাম বিএনএ