ভোটের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে:কাদের মির্জা

ভোটের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে:কাদের মির্জা

বৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃহত্তর চট্টগ্রাম রাজনীতি সব খবর

বিএনএ,নোয়াখালী:কেউ ভোট চুরি করতে আসলে লাঠি দিয়ে হাঁটুর নিচে মারতে কর্মী সমর্থকদের নির্দেশ দিয়েছেন নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভায় মেয়র প্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা।পুরাতন জুতা-স্যান্ডেল দিয়ে ভোট চোরদের মারতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি)পৌরসভার ৪নম্বর ওয়ার্ডে এক নির্বাচনী কর্মিসভায় আবদুল কাদের মির্জা আরও বলেন,ভোটের দিন দুপুর ১২টা হয়তো বিএনপির মেয়র প্রার্থী কামাল চৌধুরী কারচুপি অভিযোগ তুলে ভোট বর্জন করবেন।বিএনপির প্রত্যশাই এটি।আরেক প্রার্থী জামায়াতের মোশারফের কথাও একই।এরা সবাই টাকা-পয়সা খেয়ে ভোটে রঙ লাগানোর চেষ্টা করছেন।এসব ব্যাপারে সবাইকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

তিনি বলেন,ভোট প্রশ্নবিদ্ধ করতে তথাকথিত আওয়ামী লীগ নেতারা ষড়যন্ত্র করছে।নোয়াখালীর বিএনপির সাবেক মেয়র হারুনকে ৫০ লাখ টাকা দিয়ে বসুরহাট পাঠানো হয়েছে।মারামারি দাঙ্গা-হাঙ্গামা বাঁধিয়ে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য।ষড়যন্ত্রকারীরা মারামারি ও দাঙ্গা বাধিয়ে প্রচার করবে এখানে ভোট ফেয়ার হয়নি, রক্তপাত হয়েছে।

তাকে পরাজিত করার জন্য প্রতিপক্ষ আগেও চেষ্টা করেছে জানিয়ে কাদের মির্জা বলেন,ভোটের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে।এখন ষড়ষন্ত্রের ধরন পাল্টিয়ে তারা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর প্রার্থীদের বিরুদ্ধেও ষড়যন্ত্র করছে।

নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে,কোনো মায়ের বুক খালি করলে এর সকল দায়-দায়িত্ব এলাকার সংসদ সদস্য হিসেবে ওবায়দুল কাদেরকে নিতে হবে।পাশাপাশি নির্বাচন কমিশনার শাহাদাত,ডিসি-এসপি,জেলা নির্বাচন অফিসার অভিযুক্ত হবেন।এর সব দায় দায়িত্ব তাদের নিতে হবে।

নির্বাচনে হেরে গেলেও জনগণের সঙ্গে থাকার অঙ্গিকার করে এই পৌর মেয়র প্রার্থী বলেন, নির্বাচনকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অংশ হিসেবে নিয়েছেন তিনি।

বিএনএনিউজ/আরকেসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *