মন্ত্রী আসবেন তাই..

বিএনএ ঝিনাইদহঃ সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ঝিনাইদহ আগমনের খবরে নড়ে চড়ে বসেছে ঝিনাইদহ সড়ক ও জনপথ বিভাগ। মন্ত্রী আসবেন বলে এতোদিন পড়ে থাকা দীর্ঘদিনের পুরোনো খানাখন্দক ও রাস্তার গর্ত তড়িঘড়ি করে মেরামত করতে দেখা গেছে।

শনিবার ঝিনাইদহ শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড, মুজিব চত্বর, এইচএসএস রোড ও কুষ্টিয়া সড়কের বিভিন্ন স্থানে পিচ পাথর দিয়ে গর্ত মেরামত করা হচ্ছে। এক সপ্তাহ ধরে ঝিনাইদহ সড়ক বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের এ সব করতে ঘাম ছুটে যাচ্ছে। সড়ক বিভাগের অফিসও সাজানো হচ্ছে দৃষ্টি নন্দন সাজে।

এছাড়া সড়ক বিভাগের রোলার দিয়ে সম্মেলন স্থলের কাঁচা রাস্তা সমান করতে দেখা গেছে। বন্ধের দিনেও ঝিনাইদহ পৌরসভার পরিচ্ছন্ন কর্মীদের মশা নিধনে স্প্রে করতে দেখা গেছে, যা এতো দিন করা হয়নি। ঝিনাইদহ সড়ক বিভাগ ও পৌরসভার এমন কর্মকান্ড দেখে রসিকজনেরা নানা মন্তব্য করতে দেখা গেছে।

মাহবুব নামে এক রিক্সা চালক জানান, “মন্ত্রী যে পথ দিয়ে আসবেন সেই পথ চকচকা করা হলেও পৌর এলাকার কোন রাস্তায় চলাচল করা যায় না। মন্ত্রীর আসার খবরে ওরা রাস্তাঘাট ভালো করে নিজেরা ভালো হচ্ছে”।

আসালত উদ্দীন নামে এক ব্যবসায়ী জানান, “মন্ত্রী সাহেব যদি মাঝেমধ্যেই ঝিনাইদহে আসতেন তবে রাস্তাগুলো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকতো। নাগরিকরা সাচ্ছন্দ্যে চলাফেরা করতে পারতো”।

বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মুকুল জ্যোতি বসু জানান, সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রীর আগমনের জন্য রাস্তা ঠিক করা হচ্ছে এটা ঠিক নয়। ছোটখাটো মেরামত সড়ক বিভাগের রুটিন ওয়ার্ক।

উল্লেখ্য, রোববার ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। এখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন দলের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। মুলত মন্ত্রীর আগমনের খবরেই শহরের রাস্তা মেরামত, জেব্রা ক্রসিং, ডিভাইডার ও রোড মার্কিং নতুন ভাবে সড়ক বিভাগের পক্ষ থেকে রং করা হচ্ছে।

বিএনএ/ আতিক, ওজি