Bnanews24.com
Home » অর্ধনগ্ন ছবি দিয়ে তোপের মুখে মডেল
এক নজরে বিনোদন

অর্ধনগ্ন ছবি দিয়ে তোপের মুখে মডেল

গহনা

বিনোদন ডেস্ক: পর্নো  বানানো এবং তা ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিলেন গহনা বশিষ্ঠ। জামিনে মুক্ত সেই মডেল-অভিনেত্রী ফের শ্যুট শুরু করলেন। ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে নিজের অর্ধনগ্ন ছবি পোস্ট করে নিজের ছবির কথা জানালেন এবং উঠতি মডেল-অভিনেত্রীদের তোপও দাগলেন।

জুলাই মাসের শেষের দিকে জোর করে পর্নো অভিনয় করানোর জন্য মামলা দায়ের করা হয় রাজ কুন্দ্রার তিন সহকর্মী ও গহনার বিরুদ্ধে। যে মহিলা গহনার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছিলেন, তার সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে গহনা বলেছিলেন, তাকে ফাঁসানো হচ্ছে। তিনি কাউকে কোনও ভিডিওর অভিনয়ের জন্য জোর করেননি।

সাম্প্রতি পোস্টে ছবিতে দেখা যাচ্ছে, বিছানায় বসে গহনা। সাদা চাদরে নিজের শরীরের সামনের অংশ ঢেকেছেন। খোলা পিঠ রেখেছেন ক্যামেরার দিকে। সেই ছবির নীচে লেখা, ‘এই ছবি শ্যুট করার সময়ে প্রায় ২০ জন আমার আশপাশে ছিলেন। আমি নেশায় মত্ত ছিলাম না, সেটে কোনও শরবত খাইনি। সম্পূর্ণ জ্ঞানত অবস্থায় এই শ্যুট করেছি। অটো করে সেটে গিয়েছি। আবার শ্যুট শেষে অটো করেই বাড়ি ঢুকেছি। পুরো পারিশ্রমিক নিয়েছি। সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, আমার বয়স ১৮ বছরের বেশি। আমি এক জন প্রাপ্ত বয়স্ক।’ শেষে নাম না করে উঠতি মডেলদের তোপ দেগে লিখলেন, ‘দয়া করে হুট করে একদেড় বছর পরে আমার প্রযোজকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করবেন না।’

রাজ কুন্দ্রা গ্রেফতারের পর থেকে একমাত্র গহনাই তাকে সমর্থন জানিয়েছেন। তার দাবি ছিল, পনোর্ এবং যৌন উদ্দীপক ছবির মধ্যে মূলগত পার্থক্য রয়েছে। রাজ কখনওই পনোর্ বানাননি। তাকে ফাঁসানো হচ্ছে বলে দাবি গহনার। একই শ্যুটের ছবি পোস্ট করে ফের রাজের কথা তুললেন তিনি। লিখলেন, ‘এই সমস্ত ছবির সঙ্গে রাজের কোনও সম্পর্ক নেই। তাই ট্রোল করার জায়গা নেই। ছবিগুলি পছন্দ না হলে দেখবেন না।’

যদিও তার পোস্টগুলিতে কোথাও লেখা নেই, তিনি কোনও যৌন উদ্দীপক ছবির শ্যুট করছিলেন, নাকি শুধু ফোটোশ্যুট। গত মাসের শুরুর দিকেও তিনি নগ্ন হয়ে লাইভে এসে একই বিষয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। তার বক্তব্য ছিল, ‘আমার শরীরে এক টুকরো কাপড় নেই। আমি নগ্ন। এই অবস্থায় আমি লাইভে এসেছি। কিন্তু কারও কি এটাকে পনোর্ বলে মনে হচ্ছে? না তো? তা হলে আমার অন্যান্য ভিডিওর তে পোশাক পরে থাকলেও পনোর্ বলছে লোকে!

বিএনএনিউজ২৪/ এমএইচ