29 C
আবহাওয়া
৭:১১ পূর্বাহ্ণ - জুলাই ১৫, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » জামিন নিয়েই শপথ নিলেন কাজী মোজাম্মেল!

জামিন নিয়েই শপথ নিলেন কাজী মোজাম্মেল!

জামিন নিয়েই শপথ নিলেন কাজী মোজাম্মেল!

বিএনএ, চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় আসামী ছিনতাই, পুলিশের ওপর হামলা ও গাড়ি ভাঙচুরের অপরাধে করা পুলিশের মামলায় আগাম জামিন নিয়েছেন মঙ্গলবার (১১ জুন)। পরদিন বুধবার (১২ জুন) শপথ নিয়েছেন আনোয়ারা উপজেলার নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী মোজাম্মেল হক।

এদিকে গতকাল জামিন পাওয়ার পর বুধবার (১২ জুন) দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর আইস ফ্যাক্টরি রোডের প্রাইমারি চিটার্স ট্রেনিং ইনিস্টিটিউট (পিটিআই) অডিটোরিয়াম হলে আনোয়ারা উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান কাজী মোজাম্মেল হকসহ চট্টগ্রাম জেলার চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানরা শপথ নিয়েছেন। শপথ বাক্য পাঠ করিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার মো. তোফায়েল ইসলাম।

মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুর ১টার দিকে মহামান্য সুপ্রীমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল করিম ও বিচারপতি কে এম ইমরুল কায়েশ এর দ্বৈত বেঞ্চ ক্রিমিনাল মিস চ্যালেঞ্জাস কেসের (৪২১৮৫) শুনানী শেষে তাদেরকে ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন প্রদান করেন।

জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতে আসামিপক্ষে শুনানি করা হাইকোর্ট বিভাগের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রশিদা চৌধুরী।

জামিনপ্রাপ্তরা হলেন- প্রধান আসামী কাজী মোজাম্মেল হক (৫৮), মোজাম্মেল হক প্রকাশ মোজাম্মেল (৪০), শাহাদাৎ হোসেন (৩৬), মো. আজাদ (৩৫), শাহাদাৎ হোসেন টিপু (৪০), এম নজরুল ইসলাম (৪৫), মো. জসিম (৪২), আক্তার হোসেন প্রকাশ আক্তার (৪০), জিয়া উদ্দিন (৩৫), নাজিম উদ্দিন (৪৫), মো. ইয়াছিন হিরো (৫৫), ফাকরুল ইসলাম (৩০), শামসুল আলম (৪২), তৌহিদুল ইসলাম (৩৮), মনছুর (৩০), এয়ার মোহাম্মদ (৫৫), মো. রাসেল (৪০), মুছা তালুকদার (৪২), মো. বাবু (১৯), মো. রিয়াজ (২২), মিশন কলি (৩৮), নাজিম উদ্দিন (৫৮), অনুপম চক্রবর্তী (৪৫), নবী হোসেন (৩৬), মোজাহের (৩৮), মাকসুদ প্রকাশ মাকসুদ উদ্দিন বাচ্চু (২৫), এরশাদ মিন্টু (৩০), মো. আইয়ুব (৪১), মো. হানিফ (৩০), রাসেল সিকদার (৪৫), আব্দুল্লাহ আল নোমান (৪৫), মুজিবুল হক (৩৫), আলী আকবর (২৬), মো. দিদার (৩৫), মো. আলী আজগর (৩৪), সাদ্দাম হোসেন (২৮), বোরহান উদ্দিন (২২), জাহাঙ্গীর (৩১), আশরাফুল হক আসিফ (৩৮), মো. জসিম উদ্দিন (৩১), মো. হেলাল প্রকাশ গুটি হেলাল (৩৫), তারেক আজিজ (৩৫) ও আজিজুল হক আজিজ (৪৫)। তিন ধাপে ৪৪ জন আসামিই জামিন নেন।

পুলিশের করা মামলা সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার (৮ জুন) রাত ১১টার দিকে আনোয়ারা উপজেলার চাতরি-চৌমুহনী এলাকায় উপজেলা চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে পুলিশের ওপর হামলা করে মোজাম্মেল হক নামের এক আসামীকে ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটে।

পরদিন পুলিশের ওপর হামলা করে আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা কাজী মোজাম্মেল হককে প্রধান আসামি করে ৪৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পুলিশ। মামলার অন্যান্য আসামিরা আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মী বলে জানা গেছে। এবং তারা সবাই বর্তমান অর্থপ্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান এমপির অনুসারী।

বন্দর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই ) মো. মিজানুর রহমান আনোয়ারায় থানায় পুলিশ অ্যাসল্টে এ মামলা দায়ের করেন।

জানা যায়, হাইকোর্টের একই আদালতে আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত আওয়ামী লীগ নেতা এম এ মান্নান চৌধুরী ২৬ জনকে আসামি করে যে মামলা করেছিলেন কর্ণফুলী থানায়, ওই মামলার ১৭ জন আসামিও হাইকোর্ট থেকে ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন নেন।

জামিনপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- মোজাম্মেল হক প্রকাশ মোজাম্মেল (৪০), শাহাদাৎ হোসেন (৩৫), মো. মুছা তালুকদার (৪২), জিয়া উদ্দিন (৩২), নাজিম উদ্দিন (৪৫), মো. হাশেম (৪৫), তৌহিদুল ইসলাম (৩৮), নবী হোসেন (২৫), মনিরুল আলম (৩০), মো. মোজাহের (৩৪), মাকসুদ উদ্দিন বাচ্চু (৩৬), এরশাদ মিন্টু (৩৫), মো. আইয়ুব (৩৫), তারেক আজিজ (৩৫), মো. আজাদ (৩৫), শামসুল আলম (৪০), মাঈন উদ্দিন খান মিন্টু (৫৫)।

এর আগে একই মামলায় গত সোমবার চট্টগ্রাম আদালতে আত্মসমর্পণ করে ৫ জন আসামি জামিন নেওয়া আসামিরা হলেন- মোজাম্মেল হক প্রকাশ মোজাম্মেল (৩০), আলী আজম প্রকাশ লিটন (২৭), সাইদুর রহমান (৩২), মো. মুছা (৩৬) ও মো. বেলাল (৪০)।

উল্লেখ্য, গত ৭ জুন উপজেলার বন্দর সেন্টার এলাকায় বাজেট ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের আনন্দ মিছিল কর্মসূচির পরে সংঘর্ষে দুই গ্রুপের কয়েক ডজন নেতাকর্মী আহত হয়। ওই ঘটনায় সংসদ সদস্য জাবেদ গ্রুপের সমর্থিত আহত উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক এম এ মান্নান চৌধুরী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। পরে মামলার অভিযুক্ত প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করার জন্য পুলিশ টানেল চত্বরে অভিযান চালায়। এ সময় স্থানীয় জনতার সাথে পুলিশের ধস্তাধস্তির পর প্রধান আসামি যুবলীগ নেতা মোজাম্মেল হককে ছিনিয়ে নিয়ে যায় বিক্ষুব্ধ জনতা। পরে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে কর্ণফুলীর থানার ওসিসহ আহত হয় অন্তত ১২জন। এসময় পুরো এলাকা রণক্ষেত্র হয়ে যায়।

নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান কাজী মোজাম্মেল হক শপথ নেওয়ার পর বলেন, আমি জনগনের ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান। জনগন আমাকে যে আশায় ভোট দিয়েছে সেই আশা আমি পূর্ণ করতে চেষ্টা করব। বিশেষ করে দুর্নীতি অনিয়ম ও মাদক বন্ধ মানুষের সেবা নিশ্চিত করে একটি সমৃদ্ধ আনোয়ারা গড়ে তুলব।

বিএনএনিউজ/ নাবিদ/ বিএম/এইচমুন্নী

Loading


শিরোনাম বিএনএ