বিতর্কিত ৩ কৃষি আইন স্থগিত করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

বিতর্কিত ৩ কৃষি আইন স্থগিত করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

এক নজরে বিশ্ব ভারত সব খবর

বিএনএ,বিশ্ব ডেস্ক: ভারতের বিতর্কিত ৩ কৃষি আইনের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এই আইন কার্যকর করা যাবে না।পাশাপাশি সরকারের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের মধ্যস্থতা করার জন্য ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে সুপ্রিম কোর্ট।মঙ্গলবার(১২ জানুয়ারি)এই আদেশ দেন প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে বেঞ্চ।

সুপ্রিম কোর্ট জানায়,সর্বোত্তম উপায়ে আদালত এই সমস্যা সমাধান করতে চেয়েছে।এই ৩টি কৃষি আইন সাময়িকভাবে স্থগিত করার ক্ষমতা আদালতের রয়েছে।গোটা প্রক্রিয়ায় কেন্দ্রের ভূমিকায় শীর্ষ আদালত হতাশ।কোনো রকম সংশোধন নয়,কোনো কমিটির সঙ্গে কথা নয়,সরকারকে সম্পূর্ণভাবে আইন প্রত্যাহার করতে হবে।বিতর্কিত তিনটি কৃষি আইন নিয়ে আগেই নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়েছেন কৃষকরা।কিন্তু আইন তিনটির বৈধতা খতিয়ে দেখতে কমিটি গড়া ছাড়া পথ নেই।

সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে,কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত একটি বিচার বিভাগীয় প্রক্রিয়া।আইন স্থগিত রাখার ক্ষমতা আদালতের রয়েছে।কিন্তু অনির্দিষ্টকালের জন্য আইন স্থগিত রাখা যায় না।কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত একটি বিচার বিভাগীয় প্রক্রিয়া,যাতে বিষয়টি সম্পর্কে একটা স্বচ্ছ ধারণা মেলে।

কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষি আইনের বিরোধিতা করে আদালতে যে সব পিটিশন জমা পড়েছিল,মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফায় তার শুনানিতে নিয়ে আদালত জানায়,এর সঙ্গে জীবন ও মৃত্যু জড়িয়ে আছে।একটানা আন্দোলনের জেরে মানুষের জীবনযাত্রা এবং সম্পত্তির উপরও প্রভাব পড়েছে।যতটা ভালোভাবে সম্ভব সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হয়েছে।কৃষি আইনের বৈধতা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।তবে, সমস্যার সমাধানই একমাত্র লক্ষ্য। তাই বিশেষ কমিটি গড়ে কৃষকদের কথা শোনা হবে।এরআগে সোমবার(১১ জানুয়ারি) কৃষি আইনের বিরুদ্ধে শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টে তীব্র ভর্ৎসনার মুখে পড়ে কেন্দ্র।

সেপ্টেম্বরে সংসদে পাশ হওয়া ৩টি কৃষি আইনের বিরুদ্ধে প্রচুর মামলা হয়েছে সুপ্রিম কোর্টে।সেই মামলাগুলি একত্রিত করে শুনানি চলছে প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে।এটি মোদি সরকারের জন্য বড় ধাক্কা বলে মনে করছে ভারতীয় গণমাধ্যম।

তবে সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তে দ্বিমত জানিয়েছে কৃষক সংগঠনগুলো।তাদের দাবি, কোন সংশোধন কিংবা কমিটির সঙ্গে কথা না বলে বিতর্কিত তিনটি কৃষি আইন সরাসরি বাতিল করতে হবে।কৃষকরা কোনো কমিটির সঙ্গে কথা বলতেও প্রস্তুত নয় বলে আদালতে জানিয়েছেন আন্দোলনরত কৃষকদের পক্ষের আইনজীবী।তিনটি কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে কৃষকদের আন্দোলন শুরু পর আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সরকারের ৮ দফা বৈঠক হলেও কোন সমাধান মেলেনি।

আইনগুলো বাতিলের দাবিতে গত দেড় মাসেরও বেশি সময় ধরে দিল্লি সীমান্তে নজিরবিহীন আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন কৃষকরা।সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পরও আন্দোলনরত কৃষকরা দিল্লির সীমান্ত থেকে এখনও উঠে যাওয়ার কোন লক্ষণ দেখাননি।আন্দোলনের পরবর্তী রূপরেখা স্থির করার জন্য কৃষক নেতারা এখন নিজেদের মধ্যে আলোচনা করছেন বলে জানা গেছে।

বিএনএনিউজ/আরকেসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *