Bnanews24.com
Home » দেশে ৫ লাখ টন পেঁয়াজ মজুদ আছে: বাণিজ্যমন্ত্রী
অর্থ-বাণিজ্য কভার মন্ত্রী-সরকার সব খবর

দেশে ৫ লাখ টন পেঁয়াজ মজুদ আছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

দেশে ৫ লাখ টন পেঁয়াজ মজুদ আছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

বিএনএ ঢাকা: পেঁয়াজের সরবরাহ, মজুদ ও মূল্য স্বাভাবিক রাখতে সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। দেশে প্রায় ৫ লাখ টন পেঁয়াজ মজুদ আছে বলেও জানান তিনি।

সোমবার (১১ অক্টোবর) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সভা শেষে ভার্চুয়াল প্রেস ব্রিফিংয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ভারত ও মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত আছে। টিসিবির মাধ্যমে ৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হচ্ছে। এক মাসের মধ্যে গ্রীষ্মকালীন নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসবে। পেঁয়াজ নিয়ে কোনো কারসাজি কিংবা কৃত্রিম সংকট তৈরি করে দাম বাড়ানো হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন তিনি।

ব্যবসায়ীদের সততা ও আন্তরিকতার সঙ্গে ব্যবসা করতে আহবান জানিয়ে টিপু মুনশি বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় অভিযান জোরদার করেছে। ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতর ও প্রশাসন মাঠ পর্যায়ে বাজার তদারকি বাড়িয়েছে। পেঁয়াজের মজুদ, সরবরাহ ও দাম স্বাভাবিক রাখতে সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে বলে জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

সে সময় বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ বলেন, আগামি এক মাস পেঁয়াজের বাজার পরিস্থিতি নাজুক থাকবে। এক মাসের মধ্যেই নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসবে। পেঁয়াজের শতকরা ৮০ ভাগ দেশেই উৎপাদন হয়। ২০ শতাংশ আমদানি হয়, যার অধিকাংশ ভারত থেকে আসে। ব্যাঙ্গালুরুতে অতি বৃষ্টির কারণে ব্যবসায়ীরা দাম বাড়িয়েছে। এরজন্য ভারতীয় ব্যবসায়ীরা আংশিকভাবে দায়ী। মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আনার প্রস্তুতি চলছে। দেশে পর্যাপ্ত মজুত আছে বলেও জানান বাণিজ্য সচিব।

হঠাৎ করে দেশের বাজারে পেঁয়াজ, চিনি ও ভোজ্য তেলের মূল্যের উর্ধ্বগতিতে বাজারে অস্থিরতা দেখা দিয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছেন মধ্য ও নিম্ন আয়ের মানুষ। এমন বাস্তবতায় নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুত, সরবরাহ এবং মূল্য পরিস্থিতি পর্যালোচনায় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এতে এনবিআর, টিসিবি গোয়েন্দা সংস্থা ডিজিএফআই, এনএসআই এবং এসবি’র প্রতিনিধি ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারাসহ ব্যবসায়ী নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বিএনএনিউজ/আরকেসি