Bnanews24.com
Home » ঘূর্ণিঝড় অশনির প্রভাবে উপকূলে বৃষ্টি
আবহাওয়া টপ নিউজ সারাদেশ

ঘূর্ণিঝড় অশনির প্রভাবে উপকূলে বৃষ্টি

বৃষ্টি

বিএনএ ডেস্ক, ঢাকা: বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় অশনির প্রভাবে উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালী, নোয়াখালী ও পিরোজপুরে বৃষ্টিপাত হয়েছে। বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষ বুলেটিনে বলা হয়েছে, সোমবার সকাল ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১০৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১০২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১০২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’।

ঝড়ের কবল থেকে মানুষকে নিরাপদে রাখতে নোয়াখালী ও পিরোজপুরে বিভিন্ন সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে প্রশাসন জানিয়েছে। বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’ প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হলেও এই শক্তি ধরে রাখতে পারবে বলে মনে করছেন না আবহাওয়াবিদরা। ঘূর্ণিঝড়টি উপকূলে পৌঁছানোর আগেই হয়ত নিম্নচাপে পরিণত হবে।

পটুয়াখালী প্রতিনিধি জানান, আসানির প্রভাবে পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর উত্তাল রয়েছে। সোমবার সকাল থেকে পটুয়াখালীসহ দক্ষিণ উপকূল জুড়ে মাঝারি ও ভারি বৃষ্টিপাত হয়েছে। নদ-নদীর পানি কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। সকাল থেকে পটুয়াখালী জেলায় মোট ২৪৪.৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে পটুয়াখালী আবহাওয়া অফিস ও কলাপাড়া রাডার স্টেশন।

পটুয়াখালী আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাসুদ রানা জানান, ভোর পৌনে ৫টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৪৪.৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এর মধ্যে বিকাল ৩টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৩০.৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

কলাপাড়া রাডার স্টেশন কর্মকর্তা মো. ফিরোজ কিবরিয়া জানান, সকাল ৬টা ১ মিনিট থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এর মধ্যে বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৯০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, অশনির প্রভাবে নোয়াখালীতে সকাল থেমে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। জেলার দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় সব ধরনের নৌ চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। ফলে জেলার মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে হাতিয়ার নৌ-যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান জানান, ঘূর্ণিঝড় থেকে উপকূলীয় বাসিন্দাদের রক্ষায় ৪০৩টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রয়েছে। এছাড়া দুর্যোগের আগে ও পরে চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে পর্যাপ্ত মেডিকেল টিম গঠন করা হবে।

পিরোজপুর প্রতিনিধি জানান, অশনির প্রভাবে পিরোজপুরে সকাল থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। রাতে আবহাওয়ার গুমোট ভাব থাকলেও সকাল থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। নদীতে পানি বাড়তে শুরু করেছে। ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় ২৪৭টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে।

বিএনএনিউজ২৪/ এমএইচ