Bnanews24.com
Home » স্বাধীনতার মর্যাদা ধরে রেখে দেশকে এগিয়ে নিয়ে হবে: শেখ হাসিনা
কভার রাজনীতি সব খবর

স্বাধীনতার মর্যাদা ধরে রেখে দেশকে এগিয়ে নিয়ে হবে: শেখ হাসিনা

স্বাধীনতার মর্যাদা ধরে রেখে দেশকে এগিয়ে নিয়ে হবে: শেখ হাসিনা

বিএনএ,ঢাকা: দেশের স্বাধীনতাকে যারা ব্যর্থ করতে চেয়েছিল,আজ তারাই ব্যর্থ হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।৭৫ এর পৈশাচিক হত্যাকাণ্ড না ঘটলে দেশ উন্নয়নের কক্ষচ্যুত হতো না জানিয়ে তিনি বলেন,স্বাধীনতার মর্যাদা ধরে রেখে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে রোববার(১০ জানুয়ারি)সন্ধ্যায় গুলিস্তানের বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সীমিত পরিসরে আয়োজিত আলোচনা সভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন শেখ হাসিনা।

সে সময় শেখ হাসিনা,১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বাঙালির জন্য বাঁধভাঙা আনন্দের দিন।দীর্ঘদিনের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার অবসান হয় এদিন।পাকিস্তানের কারাগারের নির্জন প্রকোষ্ঠ থেকে মুক্ত হয়ে জাতির পিতা পা রাখেন স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশে।আজীবন দেশের মানুষের প্রতি নিবেদিত ছিলেন বলেই;স্বদেশে ফিরে পরিবার নয়, জাতির পিতা যান তার জনগণের কাছে।কিন্তু এর তিন বছর পর ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকরা জাতির পিতাকে হত্যার মাধ্যমে বাঙালি জাতির ইতিহাসে একটি কলঙ্কজনক অধ্যায় রচনা করেছিল।

বাঙালির প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন,ভাষা আন্দোলনের পর থেকে বঙ্গবন্ধুকে বারবার কারাবরণ করতে হয়।বঙ্গবন্ধু যেখানেই গেছেন,সেখান থেকেই তাকে গ্রেফতার করা হয়।আবার তিনি জামিন পেয়েছেন।বঙ্গবন্ধু মানুষের জন্য কাজ করতেন বলেই শাসকরা বারবার তাকে জেলে পাঠিয়েছেন।

তিনি বলেন,স্বাধীনতার জন্য গেরিলাযুদ্ধের প্রস্তুতি নিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু।জাতির জনকের ৭ মার্চের ভাষণে স্বাধীন রাষ্ট্র পরিচালনার সব নির্দেশনা ছিল।মাত্র সাড়ে তিন বছরে একটি স্বনির্ভর বাংলা গড়ে তুলেছিলেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু কন্যা বলেন,স্বাধীনতার শতবর্ষে কেমন থাকবে বাংলাদেশ? সেই পরিকল্পনা নিয়েই দেশকে এগিয়ে নিচ্ছে আওয়ামী লীগ।স্বাধীনতাবিরোধীদের ষড়যন্ত্র ব্যর্থ করে,বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথে দেশ আজ সম্মৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে।অর্থনৈতিক সূচকে অগ্রগতি নিশ্চিত করে দেশের প্রতিটি মানুষের আবাস গড়তে সরকার বদ্ধপরিকর।২০৭১ সালে স্বাধীনতার শতবর্ষে উদযাপন হবে,আগাইম প্রজন্ম সেটা কিভাবে উদযাপন করবে হবে সেই কথা চিন্তা করেই পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে।সেগুলো বাস্তবায়ন করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। সেইসঙ্গে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস থেকে দেশকে মুক্ত রেখে ক্ষুধামুক্ত দারিদ্রমুক্ত এবং অসম্প্রাদায়িক চেতনায় উন্নত সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলা হবে। বাঙালি জাতি বিশ্বে মাথা উঁচু করে চলবে।বাংলাদেশ স্বাধীন দেশ হিসেবে সারাবিশ্বে যে মর্যাদা পেয়েছে সেটি ধর রাখতে হবে বলে জানান আওয়ামী লীগ সভাপতি।

ঐতিহাসিক দিনটি নানা আয়োজনে পালন করছে বিভিন্ন রাজনৈতিক -সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা করে আওয়ামী লীগ। গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিএনএনিউজ/আরকেসি